ডেস্ক: পেট্রোপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এদিন কলকাতার সুবোধ মল্লিক স্ক্যোয়ার থেকে পার্ক স্ট্রীট পর্যন্ত মিছিলের আয়োজন করেছিল যুব তৃণমূল কংগ্রেস। মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মিছলে অংশ নিয়ে বিজেপির উদ্দেশ্যে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানান অভিষেক। ২০১৯ যে লোকসভা নির্বাচনই তাঁর দলের লক্ষ্য সে কথা স্পষ্ট করে দিয়ে অভিষেক বলেন, ৪২টি লোকসভা আসনের মধ্যে সবগুলিই দখল করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

এদিনের মিছিলে বিজেপির পাশাপাশি মুকুল রায়কেও বেনজির ভাষায় আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো। মুকুলের নাম না করেন তিনি বলেন, ”দল থেকে জঞ্জাল তাড়ানো জঞ্জালটা গামছা কাঁধে করে ঘুরছে। ওই গামছায় চোখ জলের মুছেই ২০১৯-এ বাড়ি যেতে হবে।” লোকসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ বানিয়ে বিজেপির উদ্দেশ্যে অভিষেকের মন্তব্য ছিল, ”কর্ণাটকে ২০১৯ সালের খুঁটিপুজো হয়ে গিয়েছে। অষ্টমী নবমী দেখিয়ে দশমীর বিদায়ঘণ্টা আমরাই বাজাব।”

অন্যদিকে, ২০১৯ কে লক্ষ্যে রেখেই আঞ্চলিক দলগুলিকে পাশে নিয়ে ফেডারাল ফ্রন্ট গঠনে উদ্যোগী হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ফ্রন্টের শিলান্যাসও কর্ণাটকে কুমারস্বামীর শপথ গ্রহণের মঞ্চেই হয়ে গিয়েছে। এদিনের মিছিলে সেই প্রসঙ্গ টেনে আনেন অভিষেক। তিনি বলেন, ”আমাদের মুখ্যমন্ত্রীকে মধ্যমণি করেই আঞ্চলিক দলগুলি সব এক হয়েছে বিজেপিকে তাড়াতে। আমাদের দম ২০১৯ সালেই দেখতে পাবে সবাই।” পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির কথা তুলে বাকি দলগুলির তুলোধোনা করেন অভিষেক। যুব সভাপতি বলেন, ”একমাত্র তৃণমূলই জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে প্রতিবাদে নেমেছে। বাকি বাম-বিজেপি সব একই হয়ে গিয়েছে।”

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here