CAB news bengali

 

Highlights

  • বুধবার সন্ধ্যায় কনিষ্ঠতম ব্যক্তি হিসেবে সিএবির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন অভিষেক ডালমিয়া
  • ১৮তম সিএবি প্রেসিডেন্ট হলেন অভিষেক
  • সিএবির যুগ্ম সচিব হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করলেন সৌরভ গাঙ্গুলির দাদা স্নেহাশিস গাঙ্গুলি

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বুধবার সন্ধ্যায় ইতিহাসের সাক্ষী থাকল ইডেন গার্ডেন্স। কনিষ্ঠতম ব্যক্তি হিসেবে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল বা সিএবির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন অভিষেক ডালমিয়া। যদিও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাতেই প্রেসিডেন্ট হলেন বছর ৩৮-এর অভিষেক। যদিও লোধা কমিটির নিয়ম অনুযায়ী ২১ সাল পর্যন্তই এই পদে থাকতে পারবেন তিনি। এছাড়া সিএবির যুগ্ম সচিব হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করলেন সৌরভ গাঙ্গুলির দাদা স্নেহাশিস গাঙ্গুলি।

বুধবার সৌরভ গাঙ্গুলির উপস্থিতিতেই অভিষেক ডালমিয়া ও স্নেহাশিস গাঙ্গুলি নিজেদের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। ১৮তম সিএবি প্রেসিডেন্ট হয়ে অভিষেক বলেন,

‘ছোটবেলা থেকেই বাবার (জগমোহন ডালমিয়া) কাছে শুনতাম ইডেন হল প্রার্থনা করার একটা মন্দির। ফলে আমার কাছে এই প্রতিষ্ঠানের একটা আলাদা গুরুত্ব আছে। এই পদে বসতে পেরে আমি খুবই আপ্লুত। তবে আমার পূর্বসূরি কোনও প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আমার তুলনা করাটা মুর্খামি হবে।’

নতুন দায়িত্ব নিয়ে খুশি স্নেহাশিস গাঙ্গুলিও। ‘রাজ্যের হয়ে খেলা যেকোনো ক্রিকেটারের কাছেই স্বপ্ন আর আমি ১০-১১ বছর খেলেছি। আমি আমার খেলোয়াড় জীবনের কথা মনে করে খুব আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলাম। এখন আমি প্রশাসক। আমাদের দলে অনেক তরুণ প্রতিভা আছে। আমরা বাংলার ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যেতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ’, বলেন স্নেহাশিস।

আগামী তিন বছরে ভারতে দুটি বড় ক্রিকেট প্রতিযোগিতা (২০২১ টি২০ বিশ্বকাপ ও ২০২৩ বিশ্বকাপ) আয়োজিত হতে চলেছে। ফলে সেই বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আয়োজন করা ও সেনার থেকে ইডেনের লিজের মেয়াদ বাড়ানই হবে নতুন প্রেসিডেন্টের প্রধান লক্ষ্য। ‘আমাদের খুব শীঘ্রই ইডেনের লিজ রিনিউ করতে হবে। তবে এটা একটু সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। এর আগে ১৫ বছরের জন্য আমরা লিজ নিয়েছিলাম। সামনেই দুটি বড় বিশ্বকাপ। আমরা চাই না সেই সময় কোনও সমস্যার সম্মুখীন আমাদের হতে হোক’, বলেন নতুন সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়া।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here