bengali news on bangladesh

Highlights

  • সিএএ, এনআরসি বিক্ষোভের জের
  • এক মাসে তৃতীয়বার সফর বাতিল বাংলাদেশের মন্ত্রীর
  • এর ফলে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে প্রভাব পড়তে বাধ্য

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও জাতীয় নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে ভারতের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ হচ্ছে। কোনও কোনও জায়গায় অশান্তির জেরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত রয়েছে। এই অবস্থায় পূর্ব নির্ধারিত ভারত সফর বাতিল করলেন হাসিনা মন্ত্রিসভার আরও এক সদস্য। ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের সঙ্গে বৈঠকের জন্য এই সপ্তাহের শেষে দিল্লি আসার কথা ছিল বাংলাদেশের বিদেশ প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের।

তিনি সেই সফর বাতিল করেছেন বলে সূত্রের খবর। কয়েকদিন আগে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের নির্যাতন নিয়ে সরকারকে যে দায়ী করেছিলেন তার প্রভাব পড়েছে বলেও মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে উত্তেজনার জেরে গত এক মাসে এই নিয়ে তৃতীয়বার দুই দেশের মধ্যে উচ্চ-পর্যায়ের বৈঠক বাতিল করল ঢাকা। গত মাসে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র ও বিদেশমন্ত্রীরা তাঁদের ভারত সফর বাতিল করেছিলেন। তার সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই দুই দেশের মধ্যে জল বণ্টন নিয়ে আলোচনা বাতিল ঘোষণা করা হয়। নাগরিকত্ব আইনের জেরে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে সম্পর্কেও যে উত্তেজনার পারদ চড়েছে, তা একের পর এক সফর বাতিলে স্পষ্ট।

এই সপ্তাহের শেষে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের উদ্যোগে দিল্লিতে রাইসিনা ডায়লগ নামে একটি বৈঠক হওয়ার কথা। প্রতিবছর আয়োজিত এই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। যা দুই দেশের সম্পর্ক আরও দৃঢ় রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু, ভারতের বর্তমান পরিস্থিতি ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যের জেরে শাহরিয়ার আলম তাঁর সফর বাতিল করলেন বলে জানা যাচ্ছে।

এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছিলেন যে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুরা অত্যাচারের শিকার। এই নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিল ঢাকা। পরে অবশ্য নয়াদিল্লির তরফে জানানো হয় যে এর আগের সরকার ও সেনা শাসনের আমলের অবস্থার কথাই এক্ষেত্রে বলতে চেয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। গত মাসে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন বলেন যে ভারত তার ঐতিহাসিক ভাবে সহ্যশীল দেশের তকমা এবার হারিয়ে ফেলতে চলেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here