kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হুগলি: সামান‍্য বচসা থেকে মারামারি দুই যুবকের। পরে এক  যুবককে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল অন্য যুবকের বিরুদ্ধে। পরে অভিযুক্তের বাড়ি ভাঙচুর করে আগুন লাগালেন নিহত যুবকের পরিবারের আত্মীয়রা। হুগলির পোলবার সুগন্ধা গ্ৰাম পঞ্চায়েতের ধূমা গ্ৰামের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব‍্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। নিহত যুবকের নাম পিন্টু মাজি। অভিযুক্ত যুবক সমীর দাসকে গ্ৰেফতার করেছে পুলিশ।

‌স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২২ এপ্রিল দুই প্রতিবেশী যুবকের মধ্যে বচসা থেকে মারামারি হয়। সামান্য বিষয়ে নিয়ে ঝগড়া, কটূক্তি থেকে ঘটনার সূত্রপাত বলে জানা যায়। স্থানীয়দের হস্তক্ষেপে তখনকার মতো বিষয়টি মিটে গেলেও বিকেলে পিন্টু মাজি সমীর দাসের বাড়ি সামনে দিয়ে যাচ্চিলেন। সেই সময় হঠাৎই সমীর চড়াও হয় পিন্টুর ওপর। পিন্টু মাজিকে বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারা হয় বলে অভিযোগ। গুরুতর আহত হয়ে  প্রায় সংঞ্জাহীন অবস্থায় গ্রামবাসীরা পিন্টুকে উদ্ধার করে চন্দননগর হাসপাতালে পাঠায়। মাথায় গুরুতর আঘাত থাকায় আহত যুবককে এসএসকেএম হাসপাতালে পাঠানো হয়। মঙ্গলবার রাতে মৃত্যু হয় পিন্টুর। তার স্ত্রী ও দুই বছরের ছেলে রয়েছে।

‌ কলকাতা থেকে মৃত‍্যু সংবাদ গ্ৰামে পৌঁছতেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে আত্মীয়রা। অভিযুক্ত সমীর দাসের বাড়িতে চড়াও হয় নিহতের পরিবরের লোকজন। ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। খবর পেয়ে পোলবা থানার পুলিশ হাজির হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। গ্রামে ব্যাপক উত্তেজনা থাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর তার পরিবারের অন্য সদস্যরা গা ঢাকা দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here