bjp bengali news

রক্তিমা দাস: রাজ্য বিজেপির সদর দফতরের সামনে রয়েছে এক বহু পুরনো চায়ের দোকান। পার্টি অফিস শুরুর প্রথম দিন থেকেই পার্টি কর্মীদের চা খাইয়ে যাচ্ছে ওই দোকান। তাই পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির উত্থান থেকে শুরু করে বর্তমানের সমস্ত বিক্ষোভের প্রধান সাক্ষী ওই চায়ের দোকান। তবে বর্তমানে যেন বিক্ষোভের কেন্দ্র স্থলে পরিণত হয়েছে বিজেপির রাজ্য সদর দফতর। অন্তত এমনটাই মত ওই দোকানের মালিকের। এই ধারা আরও প্রকট হয়েছে উপনির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবির পর।

চায়ের দোকানের মালিক তথা সবার প্রিয় কাকা জানাচ্ছেন, উপনির্বাচনে বিজেপির হারের পর থেকে কর্মী আগমনের সংখ্যা কমেছে বিজেপি অফিসে। তাই ব্যবসাও প্রায় ঢিলে যাচ্ছে তাঁর। অন্যদিকে যাঁরা আসছেন তারা হাজির হচ্ছেন নিজেদের নানান সমস্যা নিয়ে। এই ক্ষোভ শেষে পরিণত হচ্ছে বিক্ষোভে। এদিকে পার্টি অফিসের সামনের এই ক্রমাগত বিক্ষোভের আঁচ এসে পড়ছে তাঁর দোকানে। এমনকী এই বিক্ষোভের জেরে বিভিন্ন সময়ে দোকানের ক্ষতি হওয়ারও সম্ভবনায় আতঙ্কিত থাকতে হচ্ছে তাঁর মত আরও দোকানদারদের।

কিন্তু হঠাৎ কেন এই ছন্দপতন? এই প্রশ্ন উঠতেই দোকানে চায়ের আড্ডায় বসা একটি দলের মতে, বিজেপির দোষ, তারা নিজেদের ভুলটা শুনতে নারাজ। তারা প্রথম থেকেই তোষামোদ পছন্দ করে এসেছে। তাই যখনই দলের কেউ তার বিপরীতে গিয়ে ভুল ধরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে, দল তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। এর ফলে দলের অন্দরেই সৃষ্টি হয়েছে ক্ষোভের। সেই ক্ষোভ বাড়তে বাড়তেই বিক্ষোভের রূপ নিয়েছে। চলতি বছর তথা চলতি মাসের কয়েক সপ্তাহ তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ।

প্রসঙ্গত, আগের সপ্তাহের শুক্রবার রাজ্য বিজেপির সদর দফতরে এসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বীরভূম জেলার একটি প্রতিনিধি দল। বীরভূম জেলা সভাপতিকে পাল্টানোর দাবি নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তারা। একই কারন নিয়ে চলতি সপ্তাহে বিজেপির সদর দফতরে এসে অসন্তোষ প্রকাশ করে নদীয়া ও হাওড়া জেলার কর্মীরা, এমনটাই জানা গিয়েছিল বিজেপি সূত্র মারফত। তাঁদের দাবি ছিল, সদ্য দলে যোগ হওয়া তৃণমূলীদের কর্তৃত্ব মানতে নারাজ তাঁরা। তাই পাল্টাতে হবে জেলা সভাপতিকে| কিন্তু সেই বিক্ষোভকে তোয়াক্কা না করেই তারপরেই জেলা সভাপতির নতুন নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়। সেই তালিকায় বদল করা হয়নি বীরভুম জেলা সভাপতিকে। এরফলে বাড়ে কর্মীদের মধ্যে অসন্তোষ। যার দরুন বারংবার বিক্ষোভের কেন্দ্রস্থল রূপে প্রথম সারিতে উঠে আসে রাজ্য বিজেপির সদর দফতরের নাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here