‘বাংলাকে কাশ্মীর হতে দেব না’, দাবি দার্জিলিঙের সাংসদ রাজু বিস্তার

0
126

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ঠিক সময়ে দার্জিলিং সমস্যার সমাধান হবে। পশ্চিমবঙ্গকে কখনই কাশ্মীর হতে দেওয়া যাবে না। দার্জিলিঙে সাংবাদিকদের মুখোমুখে হয়ে এমনই দাবি জানিয়েছেন বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা। তাঁর কথায়, ‘দার্জিলিং সমস্যা সমাধানে নিজেদের প্রতিশ্রুতি পালন করব। বাংলাকে কাশ্মীর হতে দেব না।’

আলাপ-আলোচনার মাধ্যমেই দার্জিলিঙ সমস্যার সমাধান সম্ভব এবং ইতিমধ্যে কেন্দ্রের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথাবার্তাও শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন সাংসদ রাজু বিস্তা। তিনি বলেন, ‘নির্দিষ্ট সময়েই দার্জিলিং সমস্যার সমাধান হবে। এর জন্য প্রথমে আলোচনা শুরু হওয়া দরকার। আমি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গে কথা বলেছি। সংসদেও বিষয়টি তুলেছি। আশা করি শীঘ্রই সমাধান হবে।’ তবে আজ বললেই কাল সমাধান সম্ভব নয় বলেও জানিয়েছেন বিজেপি সাংসদ। তাঁর কথায়, ‘প্রতিশ্রুতি যখন দিয়েছি পাঁচ বছরের মধ্যেই তা পালন করব।’ একইসঙ্গে গোর্খাল্যান্ড ইশ্যুতে রাজ্যের শাসকদলের প্রতি তাঁর কটাক্ষ, অনেকে চেষ্টা করছেন, বাংলার মধ্যে যাতে কাশ্মীরের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়। কিন্তু কেন? দার্জিলিঙের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান বিজেপির প্রতিশ্রুতি ছিল, আছে এবং থাকবে বলেও দাবি জানিয়েছেন দার্জিলিঙের বিজেপি সাংসদ।

উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ করার পাশাপাশি রাজ্যটিকে দুটি ভাগে বিভক্ত করেছে নরেন্দ্র মোদীর সরকার। জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ- দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসাবে মান্যতা পেয়েছে। এই পরিস্থিতিতে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ফের গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে সরব হয়েছে। ফলে পশ্চিমবঙ্গবাসীর মধ্যে রাজ্য ভাঙার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের অবস্থাও কাশ্মীরের মতো হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকেই। যদিও প্রথম থেকেই এই ভাবনা অযৌক্তিক বলে দাবি জানিয়েছেন দার্জিলিঙের সাংসদ রাজু বিস্তা। দিন দুয়েক আগে তিনি গোর্খাল্যান্ড প্রসঙ্গে তৃণমূলকে ‘দু’মুখো সাপ’ বলেও কটাক্ষ করেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here