ডেস্ক: অলরাউন্ড পারফরম্যান্স করে ঐতিহ্যবাহী সন্তোষ ট্রফির ফাইনালে উঠল বাংলা৷ আগামী রবিবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে খেতাবী লড়াইয়ে বাংলার সামনে কেরল৷ তার আগে এদিন কর্ণাটককে ২-০ গোলে হারিয়ে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছে রঞ্জন চৌধুরির প্রশিক্ষণাধীন বাংলা৷ বাংলার হয়ে গোল দুটি করেন জিতেন মুর্মু ও তীর্থঙ্কর সরকার৷ খেতাব ধরে রাখতে একঝাঁক জুনিয়র ফুটবলারের উপরই ভরসা রাখছেন বাংলার কোচ৷

এবার টুর্নামেন্টের শুরুর দিকে বাংলাকে নিয়ে বিশেষ আশাবাদী ছিলেন না কোচ রঞ্জন চৌধুরি-সহ আইএফএ কর্তারা৷ কিন্তু সকলকে চমকে দিয়ে ৭২তম সন্তোষ ট্রফির ফাইনালের ছাড়পত্র আদায় করে নিল বাংলা৷ এদিনও শেষচারের লড়াইয়ে শুরু থেকেই দাপট দেখিয়েছে রঞ্জন চৌধুরির শিষ্যরা। শুরু থেকেই গোলের জন্য ঝাঁপালেও প্রথমার্ধে নিরশা হতে হয়েছে বাংলাকে৷ দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ঝাঁজ আরও বাড়ায় রঞ্জনের ছেলেরা৷ অবশেষে কাঙ্খিত গোলটি চলে ম্যাচের ৫৭ মিনিটে৷ জিতেন মূর্মুর গোলে এগিয়ে যায় বাংলা। এক গোলে পিছিয়ে পড়ে ছন্দ হারিয়ে ফেলে কর্ণাটক৷ ম্যাচের একেবারে শেষ দিকে বাংলার হয়ে ব্যবধান বাড়ান তীর্থঙ্কর সরকার৷

অন্যদিকে, মিজোরামকে কেরল ১-০ গোলে ফাইনালে হারিয়ে বাংলার প্রতিপক্ষ। আর কেরলকে হারাতে পারলেই ৩২ বারের জন্য এই সর্বভারতীয় টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হবে বাংলা৷ প্রসঙ্গত, গতবারও সন্তোষ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলা৷ সেবার গোয়াকে ১-০ গোলে হারিয়ে ট্রফি ঘরে তুলেছিল মৃদুল বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছেলেরা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here