ডেস্ক: বিভিন্ন প্রকল্পে সেরার শিরোপা জেতার পর এবার স্বল্প সঞ্চয়ের ক্ষেত্রেও এক নম্বরে বাংলা। চিটফান্ডের কালো সময় পেরিয়ে বাংলার মাথাতেই উঠল স্বল্প সঞ্চয়ে প্রথম হওয়ার খেতাব। এবং এই তথ্যটি জানিয়েছে খোদ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির মন্ত্রক। এর ফলে চলতি বছর নিয়ে পরপর তিনবার বাকি রাজ্যগুলিকে পিছনে ফেলে সামনে উঠে আসলো পশ্চিমবঙ্গ।

২০১০ সালের পর থেকেই স্বল্প সঞ্চয়ে ক্রমশ পিছয়ে পড়ছিল বাংলা। কারণ হিসাবে অবশ্যই উঠে এসেছিল চিটফান্ড গুলির রমরমা। সাধারণ মানুষও বেশি টাকা পাওয়ার লোভে সেখানেই নিজের গচ্ছিত ধন ঢালতে শুরু করেছিলেন। ২০১০-১১ আর্থিক বর্ষে যেখানে স্বল্প সঞ্চয়ে সংগ্রহের পরিমাণ ৯৮৭ কোটি ছিল, তা পরের আর্থিক বর্ষ ২০১১-১২তে গিয়ে কমে দাঁড়ায় ১৬৫ কোটিতে। কিন্তু একে একে চিটফান্ড গুলির ব্যবসা গুটিয়ে যায় এবং সেই স্বল্প সঞ্চয়ের রাস্তায় ফেরে বাংলা।

চিটফান্ডগুলি বন্ধ হওয়ার পর থেকেই স্বল্প সঞ্চয়ে ফের আশার আলো দেখতে শুরু করে পশ্চিমবঙ্গ। ২০১৪-১৫ সালে স্বল্প সঞ্চয়ে মাত্র ৩২ কোটি টাকা সংগ্রহ হয়েছিল, কিন্তু এর পরের বছর থেকেই ছবিটা বদলে যেতে শুরু করে। ২০১৫-১৬ সালে সংগ্রহের পরিমাণ গিয়ে দাঁড়ায় ৫১,৬৭৯। ২০১৬-১৭ সালে তা আরও একধাপ বেড়ে হয় ৬৩,৩৯২ কোটি। যেখানে মাত্র ৬ হাজার কোটি টাকার টার্গেট বেঁধে দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রের তরফে, সেখানে এতো বেশি পরিমাণ টাকা সংগ্রহ করে নতুন নজির সৃষ্টি করেছে বাংলা। অথচ স্বল্প সঞ্চয়ে বাংলার তুলনায় কয়েক যোজন পিছিয়ে গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ ও মহারাষ্ট্রের মতো বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here