Home Featured মমতা-মেথডেই যোগী আদিত্যনাথকে গদিচ্যুত করার ছক, এবার উত্তর প্রদেশ ‘মে খেলা হই’

মমতা-মেথডেই যোগী আদিত্যনাথকে গদিচ্যুত করার ছক, এবার উত্তর প্রদেশ ‘মে খেলা হই’

0
মমতা-মেথডেই যোগী আদিত্যনাথকে গদিচ্যুত করার ছক, এবার উত্তর প্রদেশ ‘মে খেলা হই’
Parul

মহানগর ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের কায়দাতেই বাজিমাত করার ছক কষছেন অখিলেশ যাদব। এমনকি উত্তর প্রদেশের ভোটের ময়দানে পারি দিয়েছে ‘খেলা হবে’ শ্লোগান। তবে উচ্চারণ টা একটু অন্য। ‘খেলা হবে’র পরিবর্তে ‘খেলা হই’।

বিধানসভা নির্বাচনে মমতার জয় অত্যন্ত তাৎপর্যবাহী। জোট সঙ্গী ছাড়াও যে বিজেপিকে ঠেকানো যেতে পারে তার প্রমাণ করে দেখিয়েছেন তিনি। অখিলেশ যাদবও এবার সেই পথেরই পথিক। অন্য কোনও পার্টির সহায়তা ছাড়া এককভাবে লড়বেন তিনি। উত্তরপ্রদেশে নির্বাচন ২০২২ সালে। তার আগেই বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। নির্বাচনী প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে গেরুয়া শিবির। সমাজবাদী পার্টিও সেরে রাখতে শুরু করেছে প্রস্তুতি। ‘খেলা হই’ স্লোগান যার হাতিয়ার।

পশ্চিমবঙ্গের সদ্য শেষ হওয়া বিধানসভা নির্বাচন মাঠ করে রেখেছিল ‘খেলা হবে’ স্লোগান। তৈরি হয়েছিল গান। নির্বাচনী প্রচার সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে দেখা যেত ফুটবল। নেত্রীর ব্যান্ডেজ বাঁধা পায়ের সঙ্গে এই স্লোগান যেন মিশে গিয়েছিল ওতপ্রোতভাবে। নির্বাচনী আবহের মধ্যে তুফান তুলেছিল ‘খেলা হবে’।

পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভালোই ফোন করেছে অখিলেশ যাদবের দল। তাই ২০২২ সালে বিধানসভা দখলের জন্য প্রস্তুতিতে কোন ত্রুটি রাখতে চাইছে না সমাজবাদী পার্টি। কানপুরে পড়েছে ‘আব ইউপি মে খেলা হই’ স্লোগান দিয়ে পোস্টার। এসপি নেতা ইমরান বলেছেন, “আমরা এই স্লোগান লেখা হোর্ডিং কানপুর শহরে ছড়িয়ে দিয়েছি। কারণ খেলাটা শুরু হবে এখান থেকেই।”

তৃণমূলের সঙ্গে সমাজবাদী পার্টির সম্পর্ক যে মোটের উপর ভালো তা বোঝা গিয়েছিল বিধানসভা নির্বাচনী প্রচারের ময়দানে। ঘাসফুল শিবিরের প্রার্থীদের হয়ে প্রচারে নেমেছিলেন সপা’র তারকা নেত্রী জয়া বচ্চন। তাঁর দলের পরিচিত লাল টুপি মাথায় দিয়ে নেমেছিলেন প্রচারে। সাধারণ মানুষের মধ্যে জয়া বচ্চনকে দেখার জন্য উৎসাহ থাকতো তুঙ্গে। তাই পরিস্থিতি বুঝে বেশ কিছুদিন বাংলায় থেকে গিয়েছিলেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here