ডেস্ক: ভাঙবে ভাঙবে করছে, কিন্তু ভাঙতে পারছে না! খানিকটা এরকম অবস্থার মধ্য দিয়েই যাচ্ছে এনডিএের দুই শরিক শিবসেনা ও জেডিইউ। যোগী আদিত্যনাথকে তাঁর জুতো খুলেই মুখে মারার কথা বলে সলতে পাকানোর কাজ করছিলেন উদ্ধব ঠাকরে। এবার মোদী সাম্রাজ্যের ৪ বছর পূর্তি হতেই নোটবন্দি নিয়ে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করে তাতে আগুনটা লাগালেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার।

একসময় সর্বশক্তি দিয়ে নোটবন্দির সমর্থন করেছিলেন এই জেডিইউ প্রধান। কিন্তু এখন অন্য সুরে গাইছেন তিনি। নীতীশ বলছেন, ”আমি প্রথমে নোটবন্দির সমর্থন করেছিলাম, কিন্তু এতে আদৌ কতজন লোক লাভবান হলেন? অনেকেই নিজের টাকা এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে চলে গিয়েছেন।” একই সঙ্গে নোটবন্দির ব্যর্থতার জন্য ব্যাঙ্ককর্মীদের দায়ি করে তিনি বলেন, সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কগুলির জন্যই নোটবন্দির যতটা সুফল পাওয়া উচিত ছিল তা পাওয়া যায়নি।

নীতীশের মুখে নোটবন্দির বিরুদ্ধ সুর যে এনডিএের জন্য ইতিবাচক সংকেত না তা খুব সহজেই অনুমেয়। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের জন্য একদিকে কেন্দ্রীয় সরকার নিজেদের এজেন্ডা প্রকাশ করে সেই মতো প্রচারে নেমে পড়েছে। অন্যদিকে, জেডিইউ ও শিবসেনার মতো দলগুলি লাগাতার কেন্দ্র বিরোধী মন্তব্য করে চলেছে। সবমিলিয়ে ২০১৯-এর আগে ভারতীয় রাজনীতিতে যে বহু নতুন রঙ দেখা যাবে তা এখন থেকেই বলে দেওয়া যাচ্ছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here