kolkata bengali news

ডেস্ক: দিল্লির সিংহাসন থেকে মোদীকে টলাতে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে দেশের বিরোধী শিবির৷ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের নানা প্রান্তে জনসভা করে মোদী হটাওয়ের ডাক দিয়ে তৃণমূলের হাত শক্ত করতে আহ্বান জানিয়েছেন মানুষের কাছে৷ ঠিক তেমনই বাংলায় পদ্মফুল ফোটাতে নির্বাচন শুরু হওয়ার পর থেকেই বাংলার মাটিতে এসে একাধিক সভা করেছেন মোদী-অমিত শাহ৷ দিদিকে বিঁধেছেন একাধিক বাক্যবাণে৷ এবার বিজেপির রাজ্য পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ শানালেন৷ বললেন মুখ্যমন্ত্রীর মেয়াদ বড়জোর আর ৩ মাস৷ তারপরেই আর মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার বনগাঁয় বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুরের জনসভা ছিল৷ সেখানেই সভা শেষে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমন মন্তব্যই করলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়৷

দিদি বারে বারে ৪২-এ ৪২ পাবেন বলে দাবি জানালেও এদিন সেই দাবি খারিজ করে দিয়ে এই বিজেপি নেতা বলেন, পশ্চিমবঙ্গে ৩০টির বেশি আসন নিয়ে বিজেপি কেন্দ্রে সরকার গড়বে। তিনি আরও বলেন, নির্বাচনের ফলাফল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে, ২৩ মের পরই তৃণমূল বিধায়করা ঘাসফুল ছেড়ে একে একে দল বেঁধে বিজেপিতে নাম লেখাবেন। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ্যমন্ত্রিত্বের মেয়াদ ফুরিয়ে এসেছে আর বড়জোড় ৩ মাস।

প্রধানমন্ত্রীকে মমতার মিষ্টি-পাঞ্জাবি পাঠানো প্রসঙ্গে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে কৈলাসের বক্তব্য, লড়াইটা রাজনীতির ময়দানে, ব্যাক্তিগত স্তরে নয়৷ তাই  আমরা রাজনৈতিক সৌজন্যতা বজায় রাখার চেষ্টা করি৷ অটলবিহারী বাজপেয়ীর কাছ থেকেই এই শিক্ষা পাওয়া৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here