মহানগর ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গে যেন ভোট উৎ’শব’ চলছে। চতুর্থ দফার ভোটের অশান্তিতে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ৫ জন। কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন ৪ জন। অপরদিকে বিজেপি, বিজেপির সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন মাত্র ১৮ বছরের এক যুবক। এই নিয়ে যখন চাপানউতোর তুঙ্গে তখন বিতর্কিত পোস্ট করে সমালোচিত হলেন টলিউড পরিচালক বিরসা দাশগুপ্ত।

পরে ড্যামেজ কন্ট্রোল করতে নেটিজেনদের উদ্দেশে ক্ষমা চেয়ে আরেকটি পোস্টে লেখেন তিনি, ‘আমি অজান্তে আপনাদের অনুভূতিতে আঘাত করে থাকি আমি আন্তরিক ভাবে ক্ষমা চাইছি। দায়িত্বশীল পুত্র,পিতা, স্বামী ও চলচ্চিত্র নির্মাতা হওয়ার দরুন আমার এই বিষয়ে অসংবেদনশীল নই। বর্তমান পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতি দেখে আমিও আপনাদের মতোই আমি অস্থির ও অসহায় বোধ করেছি। আমি হতাশ জনক অবস্থার কারনেই এই প্রতিক্রিয়া করে ফেলেছি। আর গোটা পরিস্থিতিতে ‘ডার্ক হিউমর’ এর বহিঃপ্রকাশ হয়েছে। তবে এটা কোনো হাস্যরসের সময় নয়। এটা আমাদের লজ্জায় মাথা নত হয়ে যাওয়ার সময়।’ বিরসার এই দ্বিতীয় পোস্টের পর কিছুটা হলেও শান্ত হয়েছে সমালোচনার ঝড়।

তবে, প্রথম পোস্টে ঠিক কি লিখেছিলেন তিনি ?

ভোট পর্ব মিটতেই বিরসা নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। যেখানে লিখেছিলেন, ‘কী ক্যালাকেলি চলছে। চপ মুড়ি কোল্ড ড্রিঙ্কস নিয়ে টিভির সামনে বসলে, নেটফ্লিক্স ফেল।’ চতুর্থ দফার ভোটের সন্ধ্যায় এ হেন পোস্ট স্পষ্টই নেটিজনরা বুঝতে পারে নির্বাচন প্রসঙ্গেই এই পোস্ট করা হয়েছে। সঙ্গে সঙ্গেই নেটিজনেরা সমালোচনায় মুখর হয়ে ওঠে এই পরিস্থিতিতে এরূপ পোস্ট একজন দায়িত্ববান নাগরিক হিসেবে বিরসা লিখলেন কি করে। অবশেষে সমালোচনার ঝড় রুখতে পোষ্টটি ডিলিট করে দেন বিরসা এবং ক্ষমা চেয়ে নেন। 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here