kolkata bengali news

বিশেষ প্রতিবেদক, জলপাইগুড়ি: নির্বাচনী আবহে একের পর এক সংঘর্ষের ঘটনায় তেতে উঠছে রাজ্যের পরিস্থিতি৷ ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ে রাজনৈতিক বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েছে শাসক-থেকে বিরোধী শিবির৷ রাজ্যে দ্বিতীয় দফা নির্বাচন শেষ হয়েছে গেলেও ঠেকানো যাচ্ছে না হিংসার ঘটনা৷ কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকলেও কোন্দল যেন বেড়েই চলেছে৷ দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে একাধিক বিচ্ছিন্ন অশান্তির ঘটনায় শিরোণামে উঠে এসেছে চোপড়া৷ পাহাড়ের অন্যত্র নির্বিঘ্নে ভোট হয়েছে বলে নির্বাচন কমিশন দাবি করলেও চোপড়ার অশান্তি নজর এড়ায়নি৷ জলপাইগুড়ির পাহাড়পুর গ্রাম পঞ্চায়েতও এলাকা নির্বাচনে আগের থেকেই তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষের ঘটনায় উত্তপ্ত৷ বাড়িতে এসে মহিলা সহ বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। যে কারণে নিজের নাতির জন্মদিনের অনুষ্ঠান বাতিল করলেন বিজেপি নেতা৷ জন্ম দিনের অনুষ্ঠান ছিল রবিবার।

সেইমতো কার্ড ছাপিয়ে নিমন্ত্রণ পাঠানো হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু এলাকায় বিজেপি এবং তৃণমূলের সংঘর্ষের জেরে যাতে কোনও আঁচ নিমন্ত্রিতদের গায়ে না পড়ে সেই কারণে জন্মদিনের অনুষ্ঠান বাতিল করলেন ঐ নেতা হারাধন সরকার। তার একমাত্র নাতির জন্মদিন ছিল রবিবার। কিন্তু নির্বাচনের আগের দিন থেকে এলাকায় তৃণমূল ও বিজেপি কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ অব্যাহত। হারাধন সরকারের একমাত্র নাতি আয়ুষ্মান সরকারের প্রথম জন্মদিন অনুষ্ঠান ছিল এদিন। অনুষ্ঠানে জন্য নিমন্ত্রণপত্র ছাপিয়ে আত্মীয় পরিজন সহ অতিথিদের এদিন ম্যাসেজ এবং ফোন করে অনুষ্ঠানের বাতিলের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়।

যেখানে জন্মদিন হওয়ার কথা ছিল, আয়োজন চলছিল অনুষ্ঠানের রাজনৈতিক অশান্তি এড়াতে এবার অনুষ্ঠান বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ বাড়ির সামনে প্যান্ডেল ফাঁকা। অনুষ্ঠান বাতিল। বিজেপি নেতা হারাধন সরকারের কথায় , মাঝে মধ্যে তৃণমূলের নেতা কর্মীরা হামলা চালাচ্ছেন।। এই কারণে বাতিল করা হল অনুষ্ঠান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here