corona deadbody

মহানগর ডেস্ক: করোনা যেন সমস্ত ওলোট পালোট করে দিয়েছে। একবছর আগে করোনার কোপে ঘরবন্দি মানুষ। সবে স্বাভাবিক জীবনে মানুষ পা রাখতে শুরু করেছে। ঠিক সেই সময় করোনার ঢেউ আরও বিষ নিয়ে ভারতের বুকে থাবা বসিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ধর্মীয় গোড়ামির ঊর্ধ্বে ওঠার আহ্বান দিলেন আহমেদাবাদের এক ক্যাথলিক বিশপ। তিনি বলেন, এই মুহূর্তে খ্রিস্টানদের দেহ দাহ করতে কোনও আপত্তি নেই। পরিস্থিতি যে জায়গায় পৌঁচেছে, সেক্ষেত্রে দেহ সুস্থভাবে সৎকার করাই একমাত্র উদ্দেশ্য হওয়া প্রয়োজন।

ক্যাথলিক বিশপ অ্যাথানসিয়াস রেথনা স্বামী আহমেদাবাদের বিভিন্ন চার্চের পরিচালক মণ্ডলীকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন, এই সময়ে আমাদের শুধু এটুকু নিশ্চিত করতে হবে, যাতে সৎকার সুস্থভাবে হয়। সৎকার কীভাবে হচ্ছে সেটা এই মুহূর্তে বিবেচ্য নয়। জানা গিয়েছে, কবর স্থানে জায়গার সঙ্কট দেখা দিয়েছে। করোনা পরিস্থিতি যেভাবে পড়ছে, কবর দেওয়ার জায়গা পাওয়া যাচ্ছে না আহমেদাবাদে। এই পরিস্থিতিতে আহমেদাবাদ শহরের প্রশাসন ক্যাথলিক বিশপের কাছে আবেদন করেছিল মৃতদেহগুলো যেন দাহ করা যেতে পারে।

গত একমাসে আহমেদাবাদে ভয়াবহ পরিস্থিতি ধারণ করেছে। কবরস্থানগুলো কানায় কানায় ভর্তি হয়ে গিয়েছে। জায়গা নেই। শ্মশানে দেহ দাহ করার জন্য লম্বা লাইন দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। দেশের পাশাপাশি গুরজাতে করোনা পরিস্থিতির ক্রমেই অবনতি হচ্ছে। আহমেদাবাদের পাশাপাশি সুরাট, গান্ধি নগরেও প্রতিদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। খ্রিস্টানদের পাশাপাশি গুজরাটের পার্সি ধর্মগুরুরা দেহ দাহের অনুমতি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here