নিজস্ব প্রতিবেদক আলিপুরদুয়ার: রবিবার দিনভর ডুয়ার্সের শামুকতলা সংলগ্ন এলাকায় দাপিয়ে বেড়ানো দুই বাইসনের মধ্যে একটিকে বেহুঁশ করে জঙ্গলে ফেরত পাঠানো হলেও অন্যটিকে বাঁচাতে পারল না বক্সা বনবিভাগ। হাজার জনতার উৎসাহ ভীড়ে দিশেহারা বাইসনের অতিরিক্ত দৌড়ানোতর ফলে শেষ অবধি তার মৃত্যু হয়েছে বলে বন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে।

এদিন দুটি বাইসন জঙ্গল থেকে বেরিয়ে দাপিয়ে বেড়ায় আলিপুরদুয়ার জেলার শামুকতলা সংলগ্ন দামসি বাদ -তুর্তুরি -ডাঙ্গি এলাকায়। বাইসনের শিঙের আঘাতে আহত হন দুই গ্রামবাসী। তাদের চিকিৎসা চলছে। এক বাইসনকে ঘুম পাড়ানি গুলি ছুড়ে কাবু করে জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিস্ট উপক্ষেত্র অধিকর্তা কল্যাণ রাই। পরবর্তীতে সন্ধ্যা নাগাদ অপর বাইসনকে ধরে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায় বলে জানিয়েছে বন দফতর।

প্রসঙ্গত ফসলি মাঠে ঘুরছে পেল্লাই বুনো বাইসন। দৌড়াচ্ছে এদিক ওদিক, আশেপাশের হাজার উৎসুক জনতার ভিড় দেখে সম্পূর্ণ দিশেহারা বাইসন। তবে এক দর্শকের বক্তব্য এই খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে ক্যামেরা বন্দী করছিলেন এক সাংবাদিক এবং ঠিক তখনই প্রবল বেগে তাদের দিকে দৌড়ে আসে ভীমকায় বাইসন। এরপর ঘটল বিপদ, ‘ওরে বাবারে !’ বলে চেচিয়ে উঠলেন ক্যামেরাম্যান। ক্যামেরা ফেলে দৌড় দিলেন, সঙ্গে ছিলেন সাংবাদিকও। রবিবারের সকালে এই দৃশ্যেরই সাক্ষী থাকল ডুয়ার্স । বাইসনের তাণ্ডবে শোরগোল পড়ল শামুক তলা -ডাঙ্গা পাড়া -তুর্তুরি এলাকা জুড়ে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here