kolkata news bengal

Highlights

  • নাগরিকত্ব আইনকে সমর্থন করেন না ৫৩% মানুষ
  • সমস্যা থেকে মোড় ঘোরাতেই বিজেপি এনআরসি-সিএএ এনেছে? তাতে ৬৩% মানুষের দাবি ‘হ্যাঁ’
  • ৫১%-র দাবি, আন্দোলনের ফলে রাজনৈতিক সুবিধা পাবে রাজ্যের শাসকদল

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সিএএ-এনআরসি নিয়ে বিজেপি দাবি মানুষ একে সমর্থন করছেন। যারা বিরোধিতা করছে তারা না বুঝে করছে এবং বিরোধী দল এর প্রসঙ্গে ভুল বার্তা দিচ্ছে। কিন্তু বঙ্গের ওপর যে সমীক্ষা প্রকাশ করা হয়েছে তাতে জোর ধাক্কা খেয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। একইসঙ্গে বলা যায়, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থন বেড়েছে বহুগুণ। সমীক্ষা থেকে উঠে আসছে, মোদী সরকারের নাগরিকত্ব আইনকে সমর্থন করেন না ৫৩% মানুষই।

শুধু সিএএ নয়, বেশকিছু বিষয় নিয়েই এই সমীক্ষা করেছে এবিপি আনন্দ এবং সিএনএক্স। সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে,

নাগরিকত্ব আইনকে সমর্থন করেন ৪৩% মানুষ, কিন্তু এতে সমর্থন নেই ৫৩%-এরই। অন্যদিকে, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন সংবিধানের মূল ধারা বিরোধী বলে মনে করেন ৫৩% মানুষ, তবে ৪৬% মানুষ তা মনে করছেন না। পাশাপাশি, জানতে চাওয়া হয় মূল্যবৃদ্ধি, বেকারত্বের মত সমস্যা থেকে মোড় ঘোরাতেই কি বিজেপি এনআরসি-সিএএ এনেছে? তাতে ৬৩% মানুষের দাবি ‘হ্যাঁ’। ৩১% বিজেপিকেই সমর্থন করছেন। একইসঙ্গে, ৫৫% মানুষ জানিয়েছেন, তাঁরা চান না দেশে নাগরিক পঞ্জি চালু হোক। এনআরসি চেয়েছেন ৪১%।

এই সমীক্ষা অনুযায়ী মোদী সরকারকে হারিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের ৫৯% মানুষ নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সমর্থন করেন, এবং ৫১%-র দাবি, আন্দোলনের ফলে রাজনৈতিক সুবিধা পাবে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল।

উল্লেখ্য, গত ৮-৯ জানুয়ারী মোট ২,১৩৪ জনের সঙ্গে কথা বলে এই সমীক্ষা করেছে এবিপি আনন্দ এবং সিএনএক্স। যদিও এইসব সমীক্ষার ওপর ভিত্তি করে নির্বাচনের হিসেব করা কঠিন, তবুও সমীক্ষার যা ফলাফল তাতে বিজেপি যে বাংলায় ব্যাকফুটেই রয়েছে তাই প্রমাণিত। যদিও তৃণমূল সরকার এই সমীক্ষাকে স্বাগত জানালেও এর থেকে মুখ ঘুরিয়েছে কংগ্রেস-সিপিএম। তাদের বক্তব্য, আন্দোলনের চেহারা দিনদিন পাল্টাচ্ছে। তাই এসব সমীক্ষা কিছুই প্রমাণ করে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here