নিজস্ব প্রতিবেদক, দুর্গাপুর: দাম্পত্য কলহ শুরু হয়েছিল অনেক দিন আগেই৷ নেপথ্যে একাধিক মহিলার সঙ্গে ফোনে চ্যাট, নগ্ন ছবি শেয়ার ও  অশ্লীল বার্তা আদান প্রদান৷ প্রতিবাদ করতে গেলেই স্ত্রীর ওপর চড়াও হয়ে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি৷ পরিস্থিতি এতদুর গড়ায় স্ত্রী স্বামীর কুকীর্তি জেনে ফেলায় তাকে পুড়িয়ে মারতে উদ্যত হন অভিযুক্ত ওই স্বামী৷ জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি বিজেপি নেতা ও শিক্ষা সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত৷

গোটা ঘটনার কথা থানায় জানান তার স্ত্রী, অভিযোগও দায়ের করেন৷ এরপরেই গ্রেফতার করা হয় দুর্গাপুরের নতুন পল্লী এলাকার বাসিন্দা ওই বিজেপি নেতা চিরঞ্জিত ধীবরকে৷ মঙ্গলবার রাতে নতুন পল্লীর সামনে স্ত্রীকে কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেন ওই বিজেপি নেতা  চিরঞ্জিত ধীবর এমনটাই অভিযোগ৷ চিরঞ্জিতের বউ তার সম্পর্কে বেশকিছু অবৈধ সম্পর্কের কথা জেনে যাওয়ায় পরিবারে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়৷ যা চরমে ওঠে এদিন রাতে৷

দুজনের মধ্যে বচসা থেকে শুরু হয় হাতাহাতি৷ এরপরেই স্বামীর ফোন ছিনিয়ে নিয়ে সব অশালীন চ্যাট ও ছবি প্রকাশ্যে আনেন তিনি৷ এরপরেই স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারতে উদ্যত হন অভিযুক্ত ওই বিজেপি নেতা৷ য়দিও রক্ষা পান স্ত্রী৷ চিরঞ্জিত ধীবরের স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ওই বিজেপি নেতাকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ এরপর অভিযুক্তকে আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে জেল হেফজতের নির্দেশ দেয়৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here