ডেস্ক: শীর্ষ আদালত শবরীমালায় রায় পুনর্বিবেচনা করে দেখার আবেদন গ্রহণ করলেও এখনও উত্তপ্ত দ্রাবিড় রাজ্য কেরল। শনিবার কেরলের শবরীমালা মন্দির খোলার পর থেকে এখনও টানা বিক্ষোভ চলছে সেখানে। রবিবার সকাল থেকে সেই বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। আর তাঁর জেরেই এদিন গ্রেফতার করা হল বিজেপি নেতা সুরেন্দ্রন ও তাঁর একাধিক সমর্থক।

বাম রাজ্য কেরলে শবরীমালা ইস্যুতে প্রথম থেকেই সরব বিজেপি। শবরীমালায় নির্দিষ্ট বয়েসের মহিলাদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞাকে আদালত অসাংবিধানিক বলে রায় দেওয়ার পর আন্দলনের তেজ আরও বাড়িয়েছে গেরুয়া শিবির সহ একাধিক হিন্দু সংগঠন। এহেন পরিস্থিতিতে শনিবার ফের মন্দির খোলার পর বিক্ষোভে নামে বিজেপি। তার জেরে একরকম স্তব্ধ হয়ে যায় কেরল জাতীয় সড়ক। এই ঘটনার জেরে এদিন তৎপর হয়ে ওঠে কেরল পুলিশও। পরিস্থিতি বাগে আনতে গ্রেফতার করা হয় বিজেপি নেতা সুরেন্দ্রন ও তাঁর একাধিক সমর্থককে। সবরিমালায় যাওয়ার প্রথম বেস ক্যাম্প নিলাক্কাল থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাঁদের।

উল্লেখ্য, শবরীমালা নিয়ে বিক্ষোভের তেজ দিনে দিনে আরও বাড়িয়ে চলেছে বিক্ষুব্ধরা। সনিবাহ্র শবরীমালা ইস্যুতে ১২ ঘণ্টার বনধ পালন করেছিল বিজেপি। ওই দিনই অশান্তি ছড়ানোর অভিযোগে কেরল পুলিশ গ্রেফতার করে হিন্দু ঐক্য বেদী সংগঠনের সভাপতি কেপি শশীকলাকে। সেই ঘটনার পর এদিন গ্রেফতার করা হল বিজেপি নেতা সুরেন্দ্রনকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here