kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিজেপি যুবনেত্রী পামেলা গোস্বামী মাদক-কাণ্ডে গ্রেফতার হওয়ার পর তিনি অভিযোগ করেছিলেন তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। আর তাঁকে ফাঁসিয়েছেন বিজেপি নেতা রাকেশ সিং। যিনি আবার বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়র ঘনিষ্ঠ বলে দাবি করেছিলেন পামেলা। সেই মাদক-কাণ্ডে তদন্ত করছে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ। আর এই তদন্তে আজ রাকেশ সিং-কে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তবে রাকেশ সিং আজ পুলিশকে ই-মেল করে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি লালবাজারে যেতে পারবেন না। কারণ তিনি আজ দিল্লি যাচ্ছেন। সেখানে দু’দিন থাকবেন। তারপর ফিরে এসে লালবাজারে যেতে তাঁর কোনও অসুবিধা নেই।

গতকাল লালবাজারের তরফ থেকে জানানো হয়, আজ বিকেল চারটের মধ্যে তাঁকে লালবাজার হাজিরা দিতে হবে বলে। পুলিশের সেই চিঠির উত্তরে আজ ই-মেল মারফত যেতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন রাকেশ। দিল্লি থেকে ফিরে পুলিশের সঙ্গে দেখা করবেন।

​এদিকে, বিজেপি যুব নেত্রী পামেলা গোস্বামী মাদক-কাণ্ডে গ্রেফতার হওয়ার পর ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ। তার আগে কোর্টে তোলার সময় পামেলা গোস্বামী অভিযোগ করে বলেছিলেন, তাঁকে ফাঁসানোর জন্য এইভাবে মাদক-কাণ্ডে জড়িয়ে দিয়েছেন বিজেপি নেতা রাকেশ সিং।  রাকেশ সিং আবার বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়র ঘনিষ্ঠ বলে দাবি করেছিলেন পামেলা। তাঁকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমের কাছে চিৎকার করে বলেছিলেন ওই বিজেপি যুবনেত্রী। ঘটনার তদন্তে রাকেশ সিং-কে ডেকে পাঠিয়েছিল পুলিশ। তবে তিনি দিল্লি যাচ্ছেন বলে আজ লালবাজারে যেতে পারবেন না জানিয়ে পুলিশকে ই-মেল করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here