ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশ্বস্ত সৈনিক শুভেন্দু অধিকারী শপথ নিয়েছেন ৪২-এ ৪২টি আসন জিতিয়ে তাঁকে প্রথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসানোর। অন্যদিকে, বিজেপি নেতৃত্ব রাজ্য সফরে এসে তৃণমূল কংগ্রেসের এই স্বপ্নে জল ঢেলে যাচ্ছেন। অমিত শাহের পর চলতি মাসেই রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার আগে কলকাতায় এসেছিলেন বিজেপির আরেক হেভিওয়েট সাংসদ শাহেনওয়াজ হুসেন। মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, যার দ্বারা রাজ্যই সামলাচ্ছেনা, তিনি নাকি দেশ সামলাবেন!

সম্প্রতি কলেজে ভর্তি নিয়ে যে বিস্তর তোলাবাজির অভিযোগ উঠেছে তা নিয়েও শাসকদলকে একহাত নেন হুসেন। তিনি বলেন, “বাংলায় ছাত্রদের জীবন নিয়ে ছেলেখেলা করা হচ্ছে। যা তৃণমূলের সাহায্যেই হচ্ছে। এই বাংলাকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সামলানো উচিত। উনি বাংলাই সামলাতে পারছেন না, আর গোটা দেশের কথা চিন্তা করে ভেবে পাগল হচ্ছেন।’’

তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে এহেন অভিযোগ তুলেই নরেন্দ্র মোদী সরকারের সুফলের গুণ গান শাহেনওয়াজ। তিনি বলেন, “গোটা দেশের কৃষকদের পাশে রয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। দেশের জনগণ ফের মোদীকেই ক্ষমতায় নিয়ে আসতে চান, আর বিরোধীরা চাইছে তাকেই ক্ষমতাচ্যুত করতে। মানুষ যে মোদীর পাশে রয়েছে আগামী লোকসভা নির্বাচনেই তা প্রমাণ হয়ে যাবে। আগামী ১৬ জুলাই মেদিনীপুরে প্রধানমন্ত্রী যখন কৃষক কল্যাণ সমাবেশ করবেন, তখন কৃষকদের সমর্থনও যে তাঁর পক্ষে রয়েছে তাও সাফ হয়ে যাবে।’’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here