kolkata bengali news

নিডস্ব প্রতিবেদক, কোচবিহার: উপনির্বাচনের ঠিক আগেই কোচবিহারের শীতলকুচিতে বিজেপি কর্মীর বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটল। শুক্রবার দুপুরের এই ঘটনায় ওই বিজেপি কর্মীর বাড়িতে ভাঙচুর চালানোর পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদের মারধরের অভিযোগ ওঠে। ঘটনায় তিন বিজেপি কর্মী গুরুতর জখম হয়ে শীতলকুচি বল্ক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন। অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে।

জানা গিয়েছে, গত ১১ এপ্রিল প্রথম দফায় কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই নির্বাচনে বিভিন্ন বুথে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ তুলে ৩০০ টি বুথে পুনর্নিবাচনের দাবি জানিয়েছিল বিজেপি। যদিও পরবর্তীতে নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয় শীতলকুচি বিধানসভার ১৮১ নম্বর বুথে পুনর্নিবাচন অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ২৯ এপ্রিল কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত শীতলকুচি বিধানসভা কেন্দ্রের ১৮১ নম্বর বুথে পুননির্বাচন রয়েছে। নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই উত্তেজনা বাড়ছে শীতলকুচিতে। শুক্রবার সকালে তৃণমূলের পনেরো কুড়ি জনের একটি দল বিজেপি কর্মী হাবলু বর্মনের বাড়িতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ গেরয়াদের। সেই সময় বাড়ির লোকজনদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ, গুরুতর জখম অবস্থায় আহতরা শীতলকুচি ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র চিকিৎসাধীন।

এই ঘটনার জেরে বাড়িতে থাকা অষ্টম শ্রেনীর এক পড়ুয়া এদিন পরীক্ষা দিতে পারেনি অভিযোগ। বিজেপি কর্মী মোমিতা বর্মন বিজেপি করে বলে তাদের বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে এমনটাই অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে শিতলকুচি ভাইওয়ারথানা গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান তন্ময় প্রমাণীক। তিনি বলেন, তারা নিজেরা ভাঙচুর চালিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে অভিজোগের আঙ্গুল তুলছে৷ এলাকায় উত্তেজনা থাকায় নামানো হয় কেন্দ্রীয় বাহিনী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান এস ডিপিও শুভেন্দু মণ্ডল, শীতলকুচি ওসি সহ শীতলকুচির বিডিও সহ অন্যান্য আধিকারিকরা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here