ডেস্ক: একদিকে সুপ্রিম কোর্ট, অন্যদিকে রাজধানী ছাড়িয়ে পঞ্চায়েত ভোট ঘিরে সন্ত্রাসের অভিযোগে  দিল্লিতে সন্ত্রাসের অভিযোগে প্রতিবাদ মিছিল ৷
রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোটে মনোনয়নকে ঘিরে লাগামছাড়া সন্ত্রাসের প্রতিকার চেয়ে বৃহস্পতিবার শীর্ষ আদালতে আবেদনের পাশাপাশি রাজধানীর রাজঘাট থেকে প্রতিবাদ মিছিল করলেন বিজেপির নেতারা৷ তাঁদের অভিযোগ পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত ভোটের নামে গণতন্ত্রের গলা টিপে ধরেছে শাসকদল৷

কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী ও আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় অভিযোগ করেন, দোসরা এপ্রিল মনোনয়ন পেশের শুরুর দিন থেকেই তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন বিজেপির কয়েকশো কর্মী৷ তিনি জানান, শুক্রবার তাঁরা সংসদের সামনে এর প্রতিবাদে ধরনা দেবেন৷ বাবুলের অভিযোগ, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের কর্মীদের জানিয়েছেন তিনি চান তাঁদের প্রার্থীরা মোট আসনের অর্ধেক বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে আসুক৷ এ জন্যই তিনি এবং তাঁর দলের লোকেরা গণতন্ত্রের গলা টিপে ধরছেন৷

বিজেপির অভিযোগকে অবশ্য আদৌ আমল দিতে রাজি নয় তৃণমূল নেতৃত্ব৷ তাদের পাল্টা বক্তব্য, বিজেপি মিথ্যে অভিযোগ করছে৷ উল্টে তাঁরা বিজেপির বিরুদ্ধে হামলা,সন্ত্রাস চালানোর অভিযোগ করেছে ৷ গতকালই রায়গঞ্জে একদল দুষ্কৃতীর অস্ত্র হাতে দাপাদাপির ছবি প্রচার মাধ্যমে সম্প্রচারিত হওয়ায় প্রবল প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে ৷  অন্যদিকে, পঞ্চায়েত ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে রাজভবনে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর সঙ্গে রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের কথা হয়৷ আলোচনায় রাজ্যপাল জানতে চান, কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে কেন আপত্তি করা হচ্ছে৷   সবমিলিয়ে, পঞ্চায়েত ভোটে মনোনয়ন ঘিরে অশান্তি, হিংসায় রীতিমতো উত্তপ্ত গোটা রাজ্য৷ আর সেই উত্তেজনাকে আরও তাতিয়ে দিয়েছে দু পক্ষের অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ৷ এদিনের প্রতিবাদ মিছিলে অংশ নেন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, বাবুল সুপ্রিয় ও রূপা গঙ্গোপাধ্যায়-সহ একাধিক নেতা-নেত্রী৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here