ডেস্ক: প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে ভিভিআইপি ব্যক্তিদের আসনে ষষ্ঠ শ্রেণিতে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধির জায়গা হওয়া নিয়ে তুঙ্গে রাজনৈতিক তরজা। কংগ্রেস একদিকে বিজেপির উপর অগোছালো রাজনীতির অভিযোগ তুলছে, অন্যদিকে বিজেপিও শাসকের আসনে বসে রাহুলকে ছোট দেখানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। রাহুলের ষষ্ঠ শ্রেণিতে জায়গা পাওয়া প্রসঙ্গে আক্রমণের ধার বাড়িয়ে বিজেপির বক্তব্য, তিনি যে ষষ্ঠ আসনে বসতে পেরেছেন তা শাসকদলের দয়ায়।

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি নাকি ভিভিআইপি এলাকায় বসার যোগ্যই নন, তা সত্ত্বেও তাঁকে সেখানে বসতে দিয়ে আমরা সম্মান দিয়েছি। এমনটাই মন্তব্য বিজেপি মুখপাত্র জিবিএল নরসিমা রাওয়ের। তাঁর আরও দাবি, কংগ্রেসের বিচারে গণতন্ত্র নামক কোনও বস্তুর অস্তিত্ব নেই। কারণ, কংগ্রেসের ধারণা দেশ তাদের পরিবারের অংশ। বিজেপি মুখপাত্র আরও বলেন, বিরোধী দলগুলিকে সম্মান দেওয়া বিজেপির সংস্কৃতি। কিন্তু কংগ্রেসের তা নয়।

উল্লেখ্য, প্রজাতন্ত্র দিবসের আগের দিন জানা গিয়েছিল ভিভিআইপিদের এলাকায় চতুর্থ সারিতে নাম রয়েছে কংগ্রেস সভাপতির। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই চাঞ্চল্য ছড়ায়। বিজেপির রাহুলের আসন নিয়ে নোংরা রাজনীতি করার অভিযোগ তোলে কংগ্রেস। চতুর্থ সারিতে বসার কথা থাকলেও বাস্তবে গতকাল দেখা যায় ষষ্ঠ সারিতে বসে প্যারেড দেখছেন রাহুল। জাতীয় কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা ষষ্ঠ সারিতে বসে থাকা রাহুলের একটি ছবি টুইট করে বিজেপিকে অহংকারী শাসক বলে আখ্যা দেন। রাহুল নিজে যদিও আসন বিতর্কে মাথা ঘামাতে নারাজ। তাঁর সাফ বক্তব্য, ‘কোথায় বসতে দেওয়া হল এসব নিয়ে মাথাই ঘামাচ্ছি না।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here