বাঙালির মন টানতে বাংলায় লোকগানের সুর ভাজছে বিজেপির বঙ্গ ব্রিগেড

0
325
kolkata bengali news, district news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বাঙালিকে চেনা যায় বাংলার লোক গানে। বাউল, ভাটিয়ালি, কীর্তন আরও কত কী। লক্ষ্য ২০২১, আর সেই লক্ষ্য স্থির রেখে এগোতে রাজনীতির রং মঞ্চে কোনও ফাঁক রাখতে চাইছে না বিজেপি। আর তাই বাঙালির হৃদয় ছুঁতে বাংলার একেবারে মেঠো সুরকে হাতিয়ার করল বিজেপির কৈলাস, মুকুল, দিলীপরা। একেবারে জমজমাট ভাবে বিজেপির উদ্যোগে মহাজাতি সদনে শুরু হচ্ছে গেরুয়া শিবিরে সঙ্গীত সাধনা।

বাংলায় বাঙালির মন জয়ে বিজেপি যতই উঠে পড়ে লাগুক না কেন। গেরুয়া শিবিরে হিন্দি গন্ধটা বেশ ভালোই পান বাংলার নেতারা। আর গন্ধ যে বিধানসভা জয়ের আশায় জল ঢালতে পারে তা বেশ বুঝতে পারছেন দলীয় নেতারা। ফলে ‘আমি তোমাদেরই লোক’ তা প্রমাণ করতে মরিয়ে বিজেপির বঙ্গ ব্রিগেড। ফলস্বরূপ এতকাল বাংলা লোকশিল্পের জগতে তৃণমূলের যে অবাধ বিচরন ছিল তাতে রাশ টানতে উদ্যোগী হল বিজেপি। আলাদা করে বিজেপির শিল্পী সংগঠন তৈরি করতে চায় তাঁরা। সেই কারণেই বাংলার শিল্পীদের নিয়ে মহাজাতি সদনে বিজেপি এই সঙ্গীত সম্মেলন করতে চলেছেন বিজেপির হেভিওয়েট বঙ্গ নেতারা। সেই তালিকায় রয়েছেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, রাহুল সিনহার মতো নেতারা।

জানা গিয়েছে, তৃণমূলকে টেক্কা দিয়ে বাংলার লোক শিল্পীদের নিয়ে আলাদা সংগঠন তৈরি করতে উদ্যোগ নিয়েছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই বিজেপির এই সংগঠনে যোগ দিয়েছেন বহু শিল্পী। এবং মহাজাতি সদনে আয়োজিত এই সমাবেশের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সিদ্ধার্থ নস্করকে। বিজেপির দাবি, শিল্পীদের হাতে রাখার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হলেও শিল্পীরা মমতার উপরে বেশ বিরক্ত তার প্রমাণ ইতিমধ্যেই পেয়েছেন তাঁরা। উত্তরবঙ্গ থেকে শুরু করে জঙ্গলমহলের মতো জায়গাতেও তার প্রমাণ পেয়েছে বিজেপি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here