মুখ্যমন্ত্রীর বেতন বৃদ্ধির ঘোষণা শুনে ‘যমালয়ে জীবন্ত মানুষ’-এর কথা মনে পড়ল দিলীপের

0
1109
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: শুক্রবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম থেকে রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য ষষ্ঠ পে কমিশন কার্যকর করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু ডিএ সংক্রান্ত কিছু ধোঁয়াশা এখনও রয়ে যাচ্ছে। যা নিয়ে ফের একবার সরকারকে তুলোধনা করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা শুনে ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘যমালয়ের জীবন্ত মানুষ’-এর কথা মনে পড়ে গিয়েছে দিলীপ ঘোষের। এদিন সল্টলেকে বিজেপি মহিলা মোর্চার পক্ষ থেকে ‘এক দেশ এক কর্মশালা’ নামক এক কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এহেন মন্তব্য করেন তিনি।

উদ্দেশ্য ছিল, ৩৭০ ধারা বাতিল করা সম্পর্কে মহিলাদের বোঝানো এবং ওয়াকিবহাল করা। অনুষ্ঠান শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর এই প্রতিশ্রুতি রক্ষার চেষ্টা ভানুর ওই সিনেমা মতো নয় তো! যমালয়ের জীবন্ত মানুষ যখন যমদূতদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে তখন কেউ কেউ স্কুল, হাসপাতাল সব করে দেব। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণাও সেরকম না হয়।’ ইন্ডোরের সভা থেকে নয়া বেতনক্রম ঘোষণা করলেও ডিএ ঠিক কোন হারে দেওয়া হবে তা স্পষ্ট করেননি মুখ্যমন্ত্রী। বলেছেন, ‘দেখে নেব’। মমতার এই ঘোষণাতেও সন্দেহের গন্ধ পাচ্ছেন দিলীপ। তাঁর দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের অক্ষমতা ছিল, তা আগে স্বীকার করা উচিত। মুখ্যমন্ত্রী তাঁর বিশ্বাস যোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছেন। মানুষ আর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিশ্বাস করেন না। তিনি আর মানুষের বিশ্বাস ফিরে পাবেন না। আশা করব সরকারি কর্মীরা যেন তাদের ন্যায্য অধিকার পায়।’

এদিনের কর্মীসভা থেকে দিলীপ দাবি করেন, জম্মু কাশ্মীরের থেকেও খারাপ অবস্থা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের। বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন, যারা ৩৭০ ধারার বিলোপকে সমর্থন করছেন না, তারা বিছিন্নতাবাদকেই সমর্থন করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here