kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, হুগলী: তারকেশ্বর পৌরসভার কর্মীকে মারধর করে পৌরসভার ২৮৫০ টাকা ছিনতাই করার অভিযোগ উঠল কয়েকজন দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটে হুগলীর তারকেশ্বরে বাস স্ট‍্যান্ডের পাশে পৌরসভার অধীন কর বহির্ভূত আদায় দপ্তরে। আক্রান্ত পৌর কর্মীর নাম শ্রীকান্ত গোস্বামী। তারকেশ্বর থানায় লিখিত অভিযোগ করা করেছেন শ্রীকান্ত বাবু।

আক্রান্ত পৌর কর্মী তথা তৃণমূল নেতার অভিযোগ, সকালে অফিসে ঢুকে কাজকর্ম করছিলেন তিনি। হঠাৎ কয়েকজন অফিসে ঢুকে অশ্রাব‍্য ভাষায় গালিগালাজ করে। মিটিং করার জন‍্য বাস ঠিক করা হচ্ছিল। সেই বাস বুক করা যাবেনা বলে হুমকি দেওয়া হলে তিনি বলেন, অফিসে নয়, এই বিষয়ে ইউনিয়নে কথা হবে। তখনই তাঁর ওপরে সকলে চড়াও হয়ে মারধর করে। আরও অভিযোগ, গলার হার ছিনিয়ে নেওয়া হয়। অফিসের ২৮৫০ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পা‌লিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। অভিযুক্তরা সিপিএমের সময় সিপিএমের হয়ে তোলাবাজি করেছে, তৃণমূলের শুরুর সময়ে প্রথমে তৃণমূল আশ্রিত হয়ে এসব করেছে, এখন এরাই বিজেপির আশ্রিত দুস্কৃতী।

‌ অন‍্যদিকে বিজেপি আরামবাগ সাংগঠনিক জেলার শ্রমিক সংগঠনের নেতা লাল্টু বাগ জানিয়েছেন, শ্রীকান্ত গোস্বামীর অভিযোগ ভিত্তিহীন। পরিকল্পনা মাফিক অভিযোগ করা হচ্ছে। বাস, ট্রেকার থেকে যে টাকা তোলা হয় তা কী করা হয় তা প্রশ্ন করার পর মীমাংসার জন‍্য সিকান্দার সাউকে ডাকে শ্রীকান্ত গোস্বমী। সেই নিয়ে কথা বলার সময় বচসা। আর তা থেকেই শুরু হয় ঠেলাঠেলি। তার পর শ্রীকান্ত লোক ডেকে এনে বিজেপির কর্মীদের ওপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। দাবি, শ্রীকান্তরা মারধর করলে ওখান থেকে বার করে দেওয়া হয়। সেই সময় বিজেপি কর্মী দীনেশ সাউকে তুলে নিয়ে যায় শ্রীকান্ত গোষ্ঠী বলেও অভিযোগ করা হয় বিজেপির পক্ষ থেকে। তিনি নিখোঁজ বলেও অভিযোগ করা হয়। তাঁকে খুঁজে না পাওয়া গেলে বড় আন্দোলনে নামার কথাও বলেন লাল্টু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here