kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, হুগলী: ফের বিজেপি- তৃণমূল সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে চাপা উত্তেজনা হুগলীতে। বিজেপি কর্মীকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে, বিজেপি চড়াও হয়ে তৃণমূল কর্মীদের আক্রমণ করে বলে অভিযোগ। শুক্রবার রাতে তারকেশ্বরের চাঁপাডাঙা বটতলায় ঘটনাটি ঘটে।

বিজেপির অভিযোগ, রাতে চাঁপাডাঙা থেকে ২৬ নম্বর রুট দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন বিজেপি কর্মী রমেশ বেরা। বটতলার কাছে পথ আটকায় কয়েকজন তৃণমূল কর্মী। রমেশকে হাত ধরে একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে বিজেপি করা যাবে না বলে হুমকি দেয়। প্রতিবাদ করায় শুরু হয় মারধর। মারধরের ফলে মাথা ফেটে যায় রমেশ বেরার। বন্দুক দেখিয়ে মেরে ফেলার ভয়ও দেখানো হয় বলে অভিযোগ। কোনক্রমে ছুটে পালিয়ে আসেন রমেশ। তারকেশ্বর গ্ৰামীণ হাসপাতালে তাঁর প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয়।

সবুজ শিবির মারধরের ঘটনা অস্বীকার করেছে। ব্লক তৃণমূল কার্যকারী সভাপতি লাল্টু চ‍্যাটার্জী বলেন, রমেশ বেরা দলবল নিয়ে দুর্গা পুজোর চাঁদা চাইতে খোকন মল্লিকের অফিসে উপস্থিত হয়। পঞ্চাশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। দিতে না পারায় অফিসে উপস্থিত কর্মচারীদের মারধর করে। চেঁচামেচিতে লোকজন ছুটে এলে তারা পালিয়ে যায়। তারকেশ্বর থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রের জানা গিয়েছে, শেখ হোসেন আলির অভিযোগের ভিত্তিতে অফিসে হামলার ঘটনায় শেখ গুলজার নামে এক ব‍্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এলাকা জুড়ে রয়েছে চাপা উত্তেজনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here