‘দিদিকে বলো’র দেখাদেখি এবার জনসংযোগে নামছে বিজেপিও! কর্মসূচির নাম ‘মন মে বাপু’

0
1208
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেখানো পথেই এবার রাজ্যে নয়া কর্মসূচি নিয়ে ঝাঁপাচ্ছে বঙ্গ বিজেপি। ‘দিদিকে বলো’র দেখাদেখি বিজেপি-র পক্ষ থেকে যে নয়া কর্মসূচির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তার নাম ‘মন মে বাপু’। জানা গিয়েছে, এই কর্মসূচির মাধ্যমে মূলত জনসংযোগকে হাতিয়ার করেই এগোতে চাইছে পদ্মশিবির। শনিবার বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্সে বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে দলের তরফে।

কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেখাদেখি কেন বলা হচ্ছে বিজেপির এই জনসংযোগ যাত্রাকে? ঘটনা হচ্ছে, লোকসভার ভরাডুবি সামলাতে পাল্টা রণনীতি সাজাতে সময় নষ্ট করেননি তৃণমূল নেত্রী। পেশাদার ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরকে এনে একের পর এক কর্মসূচির মাধ্যমে দলের ফাঁক ফোঁকর মেরামতের চেষ্টা করে চলেছেন। এই অবস্থায় বিজেপি-র কাছে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছিল, তৃণমূলকে রুখতে তারা কী করছে? যুতসই জবাব ছিল না কারোর কাছে। বেশ কয়েকদিন ভাবনা-চিন্তার পর সেই মাটির মানুষের সঙ্গে জনসংযোগকেই গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী যেমন দলের নেতাদের এলাকার মানুষের বাড়িতে রাত কাটানোর নির্দেশ দিয়েছেন। অনুরূপভাবে বিজেপিও নিজের নেতাদের হাঁটার বার্তা দিয়েছেন।

কীভাবে এই কর্মসূচি পরিচালিত হবে? সূত্রের খবর, বিজেপির প্রত্যেক সাংসদ, বিধায়ক, নেতা-কর্মীদের নিজের নিজের এলাকায় অন্তত ৫ কিলোমিটার থেকে ১৫ কিলোমিটার পর্যন্ত হাঁটতেই হবে। এমনটাই নির্দেশ এসেছে ‘ওপর’ থেকে। এই পদযাত্রার মাধ্যমে এলাকার মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন ও সংযোগ বাড়ানোই হবে প্রধান লক্ষ্য। কখনও তাদের বাড়িতে গিয়ে বসে অভাব-অভিযোগ শোনা। সেটা কীভাবে লাঘব হয় সেই ব্যবস্থা করে দেওয়া। ইত্যাদি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মোদ্দা কথায়, যা অনেকটা ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচিরই মতনই। পার্থক্য কেবল এখানে স্থানীয়দের বাড়িতে রাত কাটানোর নির্দেশ দেওয়া হয়নি।

বিজেপি সূত্রে খবর, মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিনের দিন অর্থাৎ ২ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে বিজেপির এই অভিযান। এই জনসংযোগ যাত্রা চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। মূল কর্মসূচি পালিত হবে ৩১ অক্টোবর। নয়াদিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী মোদী এই কর্মসূচির উদ্বোধন করবে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here