bjp_banner_presi

ডেস্ক: রাম মন্দির, রাম মূর্তি…রাম নিয়ে বিজেপির ‘ভালোবাসা’য় কোনও খামতি নেই। জাতীয় রাজনীতিতে এতদিন রাম নাম নিয়ে বিচরণ করছিল মোদী সরকার। বিগত বছরগুলিতে রাজ্যেও রাম নিয়ে প্রচারে চার-ছক্কা মারার চেষ্টা জারি বিজেপির। রামনবমী নিয়েও বঙ্গ রাজনীতিতে বিজেপি-তৃণমূল তরজা কিছু কম হয়নি। গতবারের মতো এবারেও এই ইস্যুতে হইহই রব বাংলায়।

বিজেপির এই রাম-নামে রাষ্ট্রপতিকেও সামিল হতে হবে তা কে জানত! আপনার, আমার কথা বাদ দিন, স্বয়ং রামনাথ কোবিন্দও হয়তো এই বিষয়টি আন্দাজ করতে পারেননি।

শনিবার উত্তর কলকাতায় বিজেপি প্রার্থী রাহুল সিনহার নেতৃত্বে একটি ট্যাবলো বের হয়। সেই ট্যাবলোয় যে ব্যানার লাগানো ছিল তাতে দেখা যাচ্ছে, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ‘রামরূপী’ কাউকে টিকা লাগাচ্ছেন। ব্যানারে বড় হরফেই লেখা ছিল,

‘আমরা গর্বিত আমাদের রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রি রামভক্ত!’ এখানে বিজেপি প্রধানমন্ত্রিত্ব নিয়েও হয়তো ‘কারুকার্য’ করেছে, কারণ তাদের ব্যানারে প্রধানমন্ত্রী বানানটাই ভুল! এতে হয়তো বিজেপি প্রমাণ করতে চাইছে যে, বানানে ভুল থাকলেও নরেন্দ্র মোদীর পদের ক্ষমতা লঘু হয়ে যায় না!

তবে, এটা অবশ্য বোঝাই যাচ্ছে যে সেটি কোনও নাট্যদলের ছবি। তবে বিজেপির তাতে কিছু এসে যায় না! এই ছবি দেওয়া ব্যানারের প্রেক্ষিতেই রাষ্ট্রপতিকেও ‘নিজেদের দলে’ টেনে নিয়েছে বিজেপি!

ভারতীয় সংবিধানের নিয়ম অনুযায়ী, রাষ্ট্রপতি সকল রাজনৈতিক দলের ঊর্ধ্বে, তাঁকে নিয়ে কোনও রাজনৈতিক দল প্রচার করতে পারে না। স্বভাবতই বিজেপির এই প্রচার নিয়ে এখন তরজা তুঙ্গে উঠেছে। এমনিতেই রামনবমী নিয়ে ইতিমধ্যে বিজেপির বিরুদ্ধে গিয়ে নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছে তৃণমূল। এবার নিজেদের প্রচারের জন্য রাষ্ট্রপতিকে ব্যবহার করা নিয়ে তৃণমূল কী পদক্ষেপ নেয় তা সময়ই বলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here