নিজস্ব প্রতিবেদক, বালুরঘাট: মাস ছয়েক আগে জেলাতেই দলের এক সভায় প্রকাশ্যে তিনি চড় মেরেছিলেন দলেরই জেলা সভাপতিকে। এদিন তার বাড়ি থেকেই উদ্ধার হল নিথর দেহ। ঘটনার কেন্দ্রবিন্দুতে বিজেপির দক্ষিন দিনাজপুর জেলার প্রাক্তন জেলা মহিলা সহ সভাপতি মৌসুমী মজুমদার(৪০)। মঙ্গলবার সকালে জেলার বংশীহারি থানার শেরপুর এলাকায় মৌসুমী দেবীর বাড়ি থেকেই তার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে তিনি আত্মঘাতীই হয়েছেন। তবে ঘটনার জেরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে জেলার রাজনীতিতে।

জানা গিয়েছে মঙ্গলবার সকালে মৌসুমি দেবীর বাড়ি থেকেই তার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার পরিবারের দাবি, বিজেপির জেলা নেতৃত্ব ও অনান্য কর্মীদের দ্বারা মানসিক হেনস্থা ও অপমানে মৌসুমী আত্মঘাতী হয়েছেন। যদিও সেই অভিযোগ নস্যাৎ করেছেন বিজেপির জেলা সভাপতি। দলের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে মৌসুমি দেবীর আত্মহত্যার ঘটনা দুঃখের হলেও ওই ঘটনায় দলের কেউ দায়ী নয়, কেউ জড়িতও নয়।

ঘটনার সুত্রপাত মাস ছয়েক আগে। মৌসুমি দেবী বিজেপির জেলা মহিলা সহ সভাপতি হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। গত বছর আগস্টে তিনি বুনিয়াদপুর পুরনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেছিলেন বিজেপির হয়ে। কিন্তু পরবর্তীকালে দলের জেলা সভাপতির সঙ্গে মতবিরোধ দেখা দেয় মৌসুমি দেবীর। মাস ছয়েক আগে একটি দলীয় সভায় জেলা সভাপতিকে চড় মারার ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল। এরপরে জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে মানসিক হেনস্থার অভিযোগ তুলে থানার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই নেত্রী। সেই ঘটনার জেরে জেলা বিজেপির তরফে মৌসুমি মজুমদারকে দল থেকে বহিঃস্কারও করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here