মহানগর ওয়েবডেস্ক: কাশ্মীরে ফের এক বিজেপি নেতাকে খুন করল জঙ্গিরা। গতকাল উপত্যকার বদগাম এলাকায় জঙ্গিরা আব্দুল হামিদ নাজার নামে ওই বিজেপি নেতাকে গুলি করে। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। সেখানেই আজ মৃত্যু হয় তার।

শেষ কিছু সময়ে পরপর বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতাকে খুন করেছে জঙ্গিরা। গত ৬ আগস্ট এক বিজেপি নেতা তথা গ্রামের প্রধানকে (সরপঞ্চ) গুলি করে হত্যা করে জঙ্গিরা। ঘটনাটি ঘটেছে কুলগাম জেলার ভেসুতে। সেখানেই আজ নিজের বাড়ির সামনে খুন হন সাজাদ আহমেদ খান্ডে। গুলি লাগার পর তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলেও শেষরক্ষা হয়নি। ৫ আগস্ট আবার কুলগামের আরেক সরপঞ্চ আরিফ আহমেদ শাহকে গুলি করে জঙ্গিরা। যদিও তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তিনি।

তার আগে গতমাসে বান্দিপোরে শেখ ওয়াসিম বারী নামে এক বিজেপি নেতাকে খুন করা হয়। সেই সঙ্গে তার বাবা ও ভাইকেও গুলি করে খুন করে জঙ্গিরা। পুলিশ সূত্রে জানানো হয়, তারা তিনজনেই তাদের দোকানের বাইরে বসেছিলেন। হঠাৎ করেই একদল জঙ্গি এসে এলোপাথাড়ি গুলি ছুঁড়তে শুরু করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, সেখানেই তাদের মৃত্যু হয়। আশ্চর্যের বিষয়, ওই বিজেপি নেতার সরকারি ভাবে নিরাপত্তা পান। কিন্তু ঘটনার সময় তার আটজন দেহরক্ষীর কেউই ছিলেন না। পরে ডিউটিতে গাফিলতির জন্য তাদের সকলকে গ্রেফতার করা হয়।

অন্যদিকে বারবার দলীয় নেতা-কর্মীদের উপর হওয়া হামলার প্রসঙ্গে পাকিস্তানকেই দুষেছেন জম্মু-কাশ্মীরের বিজেপি জেলা সভাপতি রবীন্দ্র রায়না। জঙ্গিদের এহেন কাজেই স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান কতটা বেপরোয়া এবং অবসাদগ্রস্ত, মন্তব্য করেছেন তিনি। এই কাপুরুষোচিত হামলা করে কোনও লাভই হবে না। কাশ্মীরকে জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ মুক্ত করা হবেই বলে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here