kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, কোচবিহার: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে এবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল কোচবিহার জেলার মাথাভাঙা। এবার বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে। মাথাভাঙ্গা বড়মরিচা এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতের এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী আহতও হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ-প্রশাসনের বিরুদ্ধেও আঙুল তুলেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মাথাভাঙ্গা বড়মরিচা এলাকায় স্থানীয় বিজেপি কর্মী শাহজাহান মিঞার একটি দোকান রয়েছে। শুক্রবার রাতে দোকান বন্ধ করার সময়ই ১৫-২০ জন দুষ্কৃতী তাঁর উপর হামলা চালায়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত অন্যান্য বিজেপি কর্মীরা শাহজাহান মিঞাকে বাঁচাতে গেলে হামলাকারীরা তাদেরও বেধড়ক মারধর করে। তারপর এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে ছুটে গেলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। তবে তাদের মারধরে শাহজাহান মিঞার মাথা ফেটে গিয়েছে। অন্যান্য বিজেপি কর্মীরাও গুরুতর আহত হয়েছেন। এরপর এলাকাবাসীই তাঁদের উদ্ধার করে প্রথমে মাথাভাঙা মহাকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখান থেকে শাহজাহান সহ ৪ জনকে কোচবিহার সরকারি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। বর্তমানে তাঁরা সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে মাথাভাঙা বিজেপি নেতৃত্ব। যদিও শাহজাহান মিঞা সহ বিজেপি কর্মীদের উপর কারা হামলা চালিয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে এই ঘটনায় শাসক দলের বিরুদ্ধেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের অভিযোগের তির থেকে বাদ যায়নি পুলিশ-প্রশাসনও। বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, শাহজাহান মিঞা সহ তাদের দলীয় কর্মীদের উপরও তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতীরা হামলা চালিয়েছে। শুধু এটাই নয়, সমগ্র জেলা জুড়ে বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা চালাচ্ছে তৃণমূল। আর তৃণমূলকে পুরোপুরি মদত দিচ্ছে পুলিশ-প্রশাসন। তবে অবিলম্বে বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা বন্ধ না হলে এবং পুলিশ কোনও পদক্ষেপ না করলে তারা আন্দোলনে নামবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছে মাথাভাঙার বিজেপি নেতৃত্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here