kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, হুগলি: তৃণমূলের মিছিল থেকে বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে হামলার ও মারধরের অভিযোগ উঠল। রেহাই দেওয়া হয়নি মহিলা থেকে শিশু-সহ বৃদ্ধাদেরও। ঘটনায় জেরে ৬ জন আহত হয়েছেন। যার মধ‍্যে চারজনকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হলে দু’জনকে ধনিয়খালি গ্ৰামীণ হাসপাতাল থেকে চুঁচুড়া হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
হুগলির ধনেখালির মান্দড়ার ঘটনা। জানা গিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ‍্যায় এই ঘটনার পর মান্দড়া গ্ৰামে ব‍্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তিনটি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী, র‍্যাফ মোতায়েন করা হয়েছে ঘটনাস্থলে।

যদিও তৃণমূল অভিযোগ অস্বীকার করেছে। বিজেপি’র বিরুদ্ধে পাল্টা মারধরের অভিযোগ তুলেছে তারা। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ধনেখালির মান্দড়া অঞ্চলের ঘোষালপাড়া এলাকায় শুক্রবার বিকেলে একটি মিছিল করে তৃণমূল। মিছিল ফেরার পথে রাস্তায় বিজেপি কর্মী অমরেন্দ্র ঘোষালের বাড়িতে চড়াও হয় কিছু লোকজন। ব্যাপক ভাঙচুর চালানোর পাশাপাশি দলীয় পতাকা ছিঁড়ে দেওয়াও হয় বলে অভিযোগ। ঘরের জিনিসপত্র ফেলে দেওয়া হয়। শিশু, মহিলা, বৃদ্ধাদেরও মারধর করা হয় বলে স্থানীয় বিজেপি নেতা হারা রায় অভিযোগ তোলেন।

এদিকে, হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ‍্যায় দলীয় কর্মীদের শান্তি বজায় রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, গান্ধী সংকল্প যাত্রায় একদিকে যখন অহিংসার কথা বলা হচ্ছে, তখন ধনেখালিতে বিজেপি কর্মীদের মারধর করা হচ্ছে। পুলিশ-প্রশাসনকে দিয়ে যতই তারা এরকম করবে, ততই আমরা আরও মানুষের কাছে এগিয়ে যাব। বলব, হিংসা নয় শান্তি চাই। তৃণমূল অবশ‍্য পাল্টা তাদের উপর আক্রমণ করা হয়েছে বলে দাবি করেছে। তৃণমূল জেলা সভাপতি দিলীপ যাদব বলেছেন, ধনেখালিতে বিজেপি প্ররোচনা দিয়ে আমাদের উপর আক্রমণ করেছে। সমস্ত বিষয়টা স্থানীয় নেতৃত্বকে দেখার জন‍্য বলেছি এবং পুলিশ-প্রশাসনকেও বলেছি ব‍্যবস্থা নেওয়ার জন‍্য। তৃণমূলের উন্নয়নকে বিজেপি ভয় পাচ্ছে। তাই বিভিন্ন এলাকায় অরাজকতা তৈরির চেষ্টা করছে বিজেপি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here