মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিহার ভোট এগিয়ে আসতেই এনডিএ জোটে ফাটলের ইঙ্গিত পাওয়া গেল। মূল শরিকদল জেডিইউ-র সঙ্গে বিজেপি-র বনিবনা ঠিক থাকলেও আরেকটি শরিকদল রামবিলাস পাসোয়ানের এলজেপি-র সঙ্গে মতানৈক্য স্পষ্ট হতে শুরু করেছে। বিধানসভা নির্বাচনের মাসখানেক বাকি থাকতেই এলজেপি আল্টিমেটাম দিয়ে ফেলেছে বিজেপি-কে। এই আল্টিমেটাম দিয়েছেন বর্তমান রামবিলাসের ছেলে চিরাগ পাসোয়ান। বাবার শারীরিক অসুস্থতার কারণে যিনি এই মুহূর্তে দলকে পরিচালনা করছেন।

সূত্রের খবর, নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রিসভার সদস্যের পুত্র গতকালই দেখা করেছেন বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে। এই সাক্ষাতের সময় বিজেপি প্রধানকে তিনি বলেছেন, আসন বণ্টন নিয়ে সিদ্ধান্ত যেন অতি শীঘ্রই নেওয়া হয়। যদি তেমনটা না হয়, তবে জোট ভাঙার সম্ভাবনা জাগিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ২৪৩টি বিধানসভা আসনের মধ্যে ১৪৩টি আসনেই নিজেদের প্রার্থী দেবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন।

এমন কী জুনিয়র পাসোয়ান নাকি এটাও বলেছেন যে, পরিস্থিতি বিচারে তিনি মুখ্যমন্ত্রী তথা জেডিইউ সুপ্রিমো নীতীশ কুমারের বিরুদ্ধেও প্রার্থী দিতে কুণ্ঠা বোধ করবেন না। এই প্রসঙ্গে চিরাগ জেপি নাড্ডাকে মনে করিয়ে দিয়েছেন, সম্প্রতি জেডিইউ বলেছিল যে তারা এলজেপি-র সঙ্গে জোটে নেই। ফলে সেই সূত্র মেনে তারাও নীতীশ কুমারের বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতেই পারে।

প্রসঙ্গত, দিনকয়ে আগেই বিহারে এসে নীতীশ কুমারের সঙ্গে বৈঠক করে গিয়েছিলেন জেপি নাড্ডা। যদিও সে বৈটকে আসন বাটোয়ারা নিয়ে কোনও ফয়সালা হয়নি। এই পরিস্থিতিতে চিরাগ পাসোয়ানের আল্টিমেটাম এনডিএ-র মধ্যেকার শরিকি যুদ্ধের আগুনে ঘি ঢালছে বলা চলে। বিশেষ করে কৃষি আইন নিয়ে অসন্তোষের জেরে শিরোমণি অকালি দলকে হারানোর পর নতুন করে ফের কোনও শরিকদলকে চটাতে চাইবে না বিজেপি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here