মহানগর ওয়েবডেস্ক: বলিউডের ‘ড্রাগ’ এবার সংসদের বিষয় হয়ে উঠল। প্রসঙ্গ উত্থাপনও করলেন ভোজপুরী অভিনেতা–রাজনীতিবিদ রবি কিষান। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্তে ড্রাগের বিষয়টি উঠে আসায় চাঞ্চল্য আগেই ছড়িয়েছিল চলচ্চিত্রমোদীদের মধ্যে। বাতাসে ভাসতে শুরু করেছিল একাধিক সেলিব্রেটির নাম। সুশান্ত’র জন্য ড্রাগ কেনা ও জোগাড় করে দেওয়ার অপরাধে নারকোটিক কন্ট্রোল ব্যুরো অভিনেতার বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতারও করেছে। এবার সেই ড্রাগ চক্রের সঙ্গে পাকিস্তান ও চিনকে একসূত্রে গেঁথে বাদল অধিবেশনের শুরুতেই সংসদে ঝড় তোলার চেষ্টা করলেন বিজেপি’র অভিনেতা সাংসদ।

উত্তর প্রদেশের সাংসদ তার বক্তৃতায় বলেন, ‘’আমাদের দেশর তরুণ সমাজকে ধ্বংস করে দেওয়ার উদ্দেশ্যে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ষড়যন্ত্রের জাল পেতেছে। পাকিস্তান ও চিন থেকে প্রতি বছর ড্রাগ পাচার হয়ে ভারতে আসে। পঞ্জাব ও নেপালের পথে সেই ড্রাগ ভারতে ঢোকে।‘’

এই প্রসঙ্গে তিনি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্তের কথা উল্লেখ করেন। ‘’সিনেমা শিল্পে পর্যন্ত এই ড্রাগের নেশা ছড়িয়ে পড়েছে। অনেককেই সন্দেহ করা হচ্ছে। এনসিবি (নারকোটিক কন্ট্রোল ব্যুরো) অত্যন্ত ভালো কাজ করছে। আমি কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানাচ্ছি দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হোক এবং প্রতিবেশী রাষ্ট্রের এই ষড়যন্ত্র বন্ধ করা হোক।‘’

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত করতে গিয়ে অভিনেতার বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর ফোনে থাকা চ্যাট নজরে আসে তদন্তকারী অফিসারদের। সেখান থেকেই জানা যায় রিয়া সুশান্ত’র জন্য ড্রাগ কিনত এবং জোগাড় করে দেওয়ার ক্ষেত্রে সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছিল। নারকোটিক কন্ট্রোল ব্যুরোর অভিযোগ রিয়া ড্রাগ সিন্ডিকেটের একজন সক্রিয় সদস্য।

নারকোটিক আইনের ধারায় এনসিবি রিয়াকে গ্রেফতার করে। এরপর রিয়ার করা জামিনের আবেদন দু’বার খারিজ হয়ে যায়। অভিনেত্রীর আইনজীবী জামিনের জন্য বোম্বে হাইকোর্টে আবেদন জানাবেন বলে জানা গিয়েছে। এনসিবি’র সূত্রে জানা গিয়েছে রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বলিউডের অনেকের নামই উঠে এসেছে। যদিও রিয়া তার জামিনের আবেদনে এনসিবি’র কাছে করা তার ‘স্বীকারোক্তি’ প্রত্যাহার করার আবেদন জানিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here