kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, উত্তর ২৪ পরগনা: প্রেমিকা বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছিল প্রেমিকের হাত ধরে। বাড়ির ফোন পেয়ে ফিরেও আসে। তারপর থেকেই আর যোগাযোগ রাখেনি চার বছরের প্রেমিকের সাথে। আর তারপরেই ধূপগুড়ির অনন্তর দেখানো পথে হাঁটল উত্তর চব্বিশ পরগণার অমিত। ধর্নায় বসে যেমন লিপিকাকে যেমন ছিনিয়ে নিয়েছিল অনন্ত। তেমন করেই অমিত পেতে  চায় সোহিনীকে।

অমিত শর্মা বাড়ি উত্তর ২৪পরগনা জেলার হাবড়া থানার নকপুল এলাকায়। বুধবার সকাল সাতটা থেকে প্রেমিকার সাথে নিজের দুটি ছবি ও সঙ্গে চারটে পোস্টার নিয়ে ধর্নায় বসে, গোবরডাঙ্গা স্টেশন লাগোয়া এলাকায়। অমিতের দাবি সে গত চার বছর ধরে হাবড়া থানার মসলন্দপুরের বিশ্বাস হাটি গ্রামের সোহিনী নামে একটি মেয়েকে ভালোবাসে, দীর্ঘ চার বছরের সম্পর্ক। এ বছর ১৪ ই আগস্ট মেয়েটিকে নিয়ে পালিয়ে যায় কিন্তু বাড়ির লোকের ফোনে হুমকির ভয়ে ফিরে আসতে বাধ্য হয়। তারপর থেকে মেয়েটি আর কোনো যোগাযোগ রাখছে না। সেই কারণে মেয়েটির ছবি ও পোস্টার নিয়ে গোবরডাঙা স্টেশন লাগোয়া জনবহুল এলাকায় ধর্নায় বসে। সাত সকালে এই ঘটনা দেখে পথচলতি মানুষ জমা হয়ে যান। ভিড় করেন স্থানীয় মানুষ। মুহূর্তের মধ্যে খবর ছড়িয়ে পড়ে দুপুর বারোটা নাগাদ অমিতের বাবা জয়দেব শর্মা দলবল নিয়ে এসে একপ্রকার জোর করেই ছেলেকে তুলে নিয়ে যান।
ধুপগুড়ির ধর্না ঘটনার পর বারবার প্রেমিকা ফিরে পেতে একাধিক যুবক বসেছে ধর্নায়। কেউ পেয়েছে হারানো প্রেমিকা, কেউ বা মার। এখন দেখার অমিতের ভাগ্যে কী আছে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here