নিজস্ব প্রতিবেদক, মেদিনীপুর: মেদিনীপুর শহরে ভর সন্ধ্যায় নিজের শালিকে কুপিয়ে খুন করল এক মদ্যপ ব্যাক্তি। মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতরভাবে জখম হয়েছেন বৃদ্ধা শাশুড়িও। আশঙ্কাজনক অবস্থায় শাশুড়িকে ভর্তি করা হয়েছে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। ঘটনার পরেই আবার নিজেই স্থানীয় থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে মদ্যপ খুনি জামাই। মেদিনীপুর শহরের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের বল্লভপুরের ঘটনা। রবিবার রাত্রি আটটা নাগাদ ঘরজামাই মদ্যপ রুপনারায়ণ সিং ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করে নিজের শালীকে।

শ্বশুরবাড়ির সম্পত্তি হাতাতে একাধিকবার মদ খেয়ে এসে বাড়িতে ঝামেলা করতো ওই ব্যক্তি। রবিবার ও সম্পত্তি নিয়ে তর্ক বচসা থেকেই অতর্কিত ভাবে ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয়ে যায় শালী শেফালী দত্ত(৫০) এর ওপরে। শাশুড়ি বাধা দিতে এলে তাকেও মারধর করে মদ্যপ জামাই। খুন করে পরে রুপনারায়ণ নিজেই এসে আত্মসমর্পণ করে কোতোয়ালি থানায়। পুলিশ গিয়ে শেফালী দত্তকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে এবং আহত শাশুড়ি রেখা দত্তকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি করে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পাড়ার লোকেরা জানিয়েছেন মদ্যপ অবস্থায় রুপনারায়নকে বহুবার বাড়িতে ঝামেলা পাকাতে দেখেছে তারা। মাতাল ঘরজামাইয়ের তাণ্ডবে অতিষ্ট ছিলেন এলাকার বাসিন্দারাও।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here