মহানগর ডেস্ক, কলকাতা: বয়স আশি পেরিয়েছে, তবু মনটা আজও ভাঙ্গেনি। শারীরিক অসুস্থতার কারণে সক্রিয় রাজনীতি থেকে অবসর নিয়েছেন কয়েক বছর আগেই। এই তো মাত্র এক বছর আগে, তিনি ছিলেন হাসপাতালের ভেন্টিলেশনে। আজ অনেকটাই সুস্থ। তাই পোস্টাল ব্যালটে নয়, বুথে গিয়ে একেবারে স্বশরীরে, লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিতে চান তিনি। দিন কয়েক আগে এই ইচ্ছাই প্রকাশ করেছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। আশি পেরলেও তিনি লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেওয়ার কথা জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনকে।

তবে শধু বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য একাই নন লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন অশতিপর বিমান বসুও। অসুস্থতার কারণে বিগত লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিতে পারেননি রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। একে তো বয়স ভার তার ওপর শারীরিক অসুস্থতা, ফলে অনেকটাই কাবু হয়ে গিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। বছর খানেক আগেই শ্বাস কষ্ট জনিত রোগে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। পাশাপাশি হাসপাতালের আইসিইউতেও যেতে হয়েছিল তাঁকে। পরে শারীরিক স্থিতিশীলতার কারণে হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হয়।

সাম্প্রতিক করোনার কারণে গুরুতর অসুস্থ বা আশি ঊর্ধ্ব ব্যক্তিদের জন্য পোস্টাল ব্যালটে ভোট দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে নির্বাচন কমিশন। এর জন্য ১২ডি ফর্ম পূরণ করে আবেদন জানাতে হচ্ছে। নির্দিষ্ট কেন্দ্রের ভোটের কয়েকদিন আগেই কমিশনের কর্মীরা হাজির হয়ে ব্যালট সংগ্রহ করছেন। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বালিগঞ্জ কেন্দ্রের ভোটার। সেখানে ২৬ তারিখ ভোট। মাত্র কয়েকদিন বাকি থাকলেও বুদ্ধবাবু এখনও নির্দিষ্ট ফর্ম জমা করেননি বলে আলিমুদ্দিন সূত্রে খবর। জানা গিয়েছে, পোস্টাল ব্যালট মারফত ভোট দিতে নারাজ বুদ্ধবাবু। তিনি চান বুথে গিয়ে লাইনে গিয়ে নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে। তবে বিষয়টি আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে বলে জানা গিয়েছে আলিমুদ্দিন সূত্রে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here