নিজস্ব প্রতিবেদক, হাওড়া: এক ব্যবসায়ীর এটিএম কার্ড জালিয়াতি করে প্রায় দু লক্ষ টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠল হাওড়া শহরের বেলুড় এলাকায়। উত্তর হাওড়ার বেলুড় এলাকার গিরিশ ঘোষ রোডের বাসিন্দা লালন মাহাতোর এটিএম কার্ড জালিয়াতি করে দু লক্ষ টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। মার্বেলের ব্যবসায়ী লালন গত ১০ই মার্চ কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনার একাধিক এটিএম কাউন্টার থেকে নিজের এটিএম কার্ড দিয়ে ব্যবসার কাজে টাকা তুলেছিলেন। এরপরই ১১ তারিখ তার অ্যাকাউন্ট থেকে প্রথমে ৯৫ হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয়। তারপর একে একে কুড়ি হাজার, দশ হাজার টাকা করে প্রায় ২ লক্ষ টাকা তুলে নেওয়া হয়।

টাকা খোয়া যাওয়ার ঘটনা জানতে পেরে দুর্ভাবনায় বিভ্রান্ত হয়ে পড়েন লালন মাহাতো। ওই ব্যবসায়ী তখনই ছুটে যান যে ব্যাঙ্কে তার অ্যাকাউন্ট রয়েছে সেখানে। বিষয়টি নিয়ে তিনি কথা বলেন ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের সঙ্গে। তারপরই বিষয়টি নিয়ে লালনবাবুর কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ গ্রহণ করে সংশ্লীষ্ট ওই ব্যাঙ্ক। পাশাপাশি ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ তাকে পরামর্শ দেয় ঘটনাটি পুলিশকেও জানাবার জন্য। এরপরই লালনবাবু বেলুড় থানায় যান ঘটনাটি নিয়ে অভিযোগ জানানোর জন্য।

 

এই বিষয়ে ওই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, তারা বারবার গ্রাহকদের সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিলেও অনেকেই ভুল করে বসেন। অপরিচিত এলাকায় এটিএম ব্যবহার করার সময় সেখানে কার্ড স্কিমিং করা হচ্ছে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখতে অনেকেই ভুলে যায়। এই ঘটনাটি তারা উচ্চতর জায়গায় অভিযোগ আকারে পাঠাচ্ছেন। তদন্তে জানা যাবে কিভাবে এই গ্রাহকের টাকা খোয়া গেল। মঙ্গলবার লালনবাবু বেলুড় থানাতেও অভিযোগ জানিয়েছেন। প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, একটি পেমেন্ট গেটওয় দিয়ে টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here