বুর্জ খালিফার সমান গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে! সতর্ক করল নাসা

0
1398
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ফের পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে এক বৃহদায়তন গ্রহাণু। সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছে নাসা। তবে সৌভাগ্যের বিষয় পৃথিবীর সঙ্গে সংঘর্ষ হবে না ওই গ্রহাণুটির। বরং বেশ খানিকটা তফাৎ দিয়ে আজই আমাদের গ্রহর পাশ দিয়ে চলে যাবে ওই গ্রহাণুটি।

নাসার সেন্টার ফর নিয়ার আর্থ অবজেক্ট স্টাডিজের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওই গ্রহাণুটির নাম 2000 QW7। গ্রহাণুটির দীর্ঘ ৮২৮ মিটার, প্রস্থ ২৯০ মিটার থেকে ৬৫০ মিটার। অর্থাৎ লম্বায় গ্রহাণুটি বিশ্বের উচ্চতম বিল্ডিং বুর্জ খালিফার প্রায় সমান। শনিবার গ্রহাণুটি পৃথিবী থেকে ৫.৩ মিলিয়ন কিলোমিটার দূর দিয়ে প্রায় ২৩,১০০ কিমি প্রতি ঘণ্টা বেগে চলে যাবে।

এক্ষেত্রে উল্লেখ্য, পৃথিবীর মতো ওই গ্রহাণুটিও সূর্যের চারপাশে ঘোরে। এর আগে ২০০০ সালের ১ সেপ্টেম্বর পৃথিবীর কাছাকাছি এসেছিল ওই 2000 QW7 গ্রহাণু। বিজ্ঞানীদের অনুমান ২০৩৮ সালের ১৯ অক্টোবর ফের একবার আমাদের পৃথিবীর কাছে আসবে ওই বৃহদাকার গ্রহাণু।

প্রসঙ্গত, ওই 2000 QW7 গ্রহাণুর আগমনবার্তা বেশ কিছু সময় আগেই দিয়েছিল নাসা। সেই সম্পর্কে একজন টুইটারে ওই গ্রহাণুর নাম দেন ‘গড অফ ক্যাওস’। সেই প্রসঙ্গে আমেরিকান এরোস্পেস কোম্পানির প্রতিস্থাতা এলন মাস্ক টুইটে লিখেছিলেন,

‘এই 2000 QW7 কে নিয়ে আমি ভাবছি না। কিন্তু ওই আকারের কোনও ঘাতক গ্রহাণু যদি আমাদের পৃথিবীর দিকে আসে? আমাদের তো তার বিরুদ্ধে বাঁচার কোনও উপায় নেই।’

একই কথা এর আগে নাসাও জানিয়েছে। তবে এই প্রসঙ্গে বলা ভাল, প্রতি নিয়তই ছোট বড় অনেক আকারের উল্কা বা মহাকাশের আবর্জনা পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসে। কিন্তু আমাদের বায়ু মণ্ডলে প্রবেশ করে প্রবল ঘর্ষণের ফলে সেগুলি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তবে ওই সুবৃহৎ আকারের গ্রহাণু ধ্বংস করার ক্ষমতা আমাদের বায়ুমণ্ডলের নেই। কয়েক কোটি বছর আগে এরকমই আক গ্রহাণু আছড়ে পড়ার ফলেই ডাইনোসর লুপ্ত হয়ে গিয়েছিল বলে বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here