ফের বাসের গতির শিকার যাত্রী, দুর্ঘটনায় দু-কান কাটা গেল প্রবীণের

0
60
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দুই বাসের রেষারেষারি জেরে কলকাতার রাস্তায় ফের দুর্ঘটনার কবলে এক যাত্রী। শুক্রবার সকালে গড়িয়াহাট মোড়ে ঘটনাটি ঘটে। জানা গিয়েছে, এদিন সকালে ২১২ নম্বর রুটের বাসে চড়ে সফর করছিলেন সমীর পাল নামে বছর ৬৫ এক প্রবীণ নাগরিক। আচমকাই বেপোরয়া হয়ে ওঠে বাসটি। পাশে থাকা ১৩সি রুটের বাসটিকে ওভারটেক করতে গিয়েই ঘটে এই বিপত্তি। দুই বাসের রেষারেষির বলি হয় ওই প্রবীণ নাগরিকের দুটো কান। সূত্রের খবর, রেষারেষির জেরে দুটি কানই কাটা গিয়েছে ওই যাত্রীর। অ্যাম্বুলেন্স না পাওয়ায় দুর্ঘটনাগ্রস্ত যাত্রীকে উদ্ধার করে ট্যাক্সিতে চাপিয়ে নিকটবর্তী একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। পরে তাঁকে নিয়ে আসা হয় ইএম বাইপাসের ধারে একটি অপর একটি বেসরকারী হাসপাতালে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, আহত যাত্রীর দু-কানেই প্লাস্টিক সার্জারি করতে হবে। একই সঙ্গে চিকিৎসক জানান, বৃদ্ধ যাত্রীর হাতে ও পায়ে চোট রয়েছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, ঘটনাস্থল থেকেই আটক করা হয়েছে দুটি ঘাতক বাসের চালক ও খালাসিকে। তাদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে গড়িয়াহাট থানায়। গড়িয়াহাট থানার তরফে জানানো হয়েছে, ধৃত চালক ও খালাসিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সম্পূর্ণ ঘটনার বিষদে জানার চেষ্টা চলছে। আটকে রাখা হয়েছে তাদের গাড়িও।

বিগত কিছুদিনের মধ্যেই শহরের রাস্তায় একের পর এক বাস দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন যাত্রীরা। যার মধ্যে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অসাবধানতার জেরে ঘটেছে বিপদ। স্বল্পসময়ের ব্যবধানে কলকায় ঘটে গিয়েছে তিন তিনটি দুর্ঘটনা। গড়িয়াহাটের এই ঘটনার কিছুদিন আগেই ১২সি/বি রুটের একটি বাসের পাদানিতে দাঁড়িয়ে থাকা এক যাত্রী গুরুতরভাবে জখম হন। ঘটনার জেরে বাদ পড়েছিল যাত্রীর কান। তার ঠিক কিছুদিন আগেই সেই টালিগঞ্জের করুণাময়ীর সামনে ৪০এ বাসে থাকা এক যাত্রী জানলার বাইরে হাত রেখে হাত খুইয়েছেন। অন্যদিকে সাম্প্রতিককালে কলকাতা পুলিশ ও পরিবহন দপ্তরের যৌথ উদ্যোগে পালিত হয়েছে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফের বর্ষপূর্তি। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, শহরে দুর্ঘটনা অনেকটাই হ্রাস করা গিয়েছে। সচেতন হয়েছে চালক ও সাধারণ যাত্রীরা। অনেক বেশি সক্রিয় হয়েছে ট্রাফিক পুলিশ। তারপর ঠিক এমন ঘোষণার পরই পরপর তিনটি মর্মান্তিক দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল শহর কলকাতা।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here