ডেস্ক: ২০১৭ সালের ১ জুলাই ভারতীয় অর্থনীতির আমুল পরিবর্তন ঘটিয়ে জিএসটি লাগু করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। লাগু হওয়ার পর থেকেই বিতর্কের মধ্যে রয়েছে এই অর্থনৈতিক সংস্কার। কিন্তু কাকতালীয় ভাবে এমন এক ইতিহাস রয়েছে যা ২০১৯ সালে প্রধানমন্ত্রীর গদি নাড়িয়ে দিতে পারে।

২০১৫ সালে এশিয়ারই আরেক দেশ মালয়শিয়ায় লাগু হয়েছিল জিএসটি। দেখা গিয়েছে, এই জিএসটি লাগু হওয়ার ঠিক ৩ বছরের মাথায় হওয়া সাধারণ নির্বাচনে হারতে হয়েছে সে দেশের শাসকশক্তিকে। এবং খুব স্বাভাবিকভাবেই পদচ্যুত হয়েছেন মালয়শিয়ার প্রধানমন্ত্রী। একটি ঘটনা হলে একে কাকতালীয়তার যথার্থতা দেওয়া যায়না। এরম একই উদাহরণ উঠে এসেছে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের দেশ কানাডা থেকেও। সেখানেও যে সরকার জিএসটি লাগু করেছিল তাদেরও পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনে হারের মুখ দেখতে হয়েছে।

বুধবার মালয়শিয়ার সাধারণ নির্বাচনের ফল প্রকাশ পায়। সেখানে ৯২ বছর বয়েসি প্রবীণ নেতা মতাহির মহম্মদের কাছে রেকর্ড সংখ্যক ভোটে পরাজিত হন নাজিব রজ্জাক। ২০১৫ সালের ১ এপ্রিল থেকে লাগু হওয়া জিএসটিকে তাঁর জীবনের অন্যতম কঠিন সিদ্ধান্ত হিসাবে উল্লেখ করেছিলেন নাজিব।

উল্লেখ্য, জিএসটি লাগু হওয়ার পর থেকেই দেশের ক্ষুদ্র এবং বড় ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের মধ্যেই জিএসটি লাগু নিয়ে যথেষ্ট অসন্তোষ রয়েছে। পেট্রোল-ডিজেলকে জিএসটির আওতায় আনার কথা বলেও তা নিয়ে আর উচ্চবাচ্য করেননি অর্থমন্ত্রী। ফলে এই দুটি ঘটনা নিতান্ত কাকতালীয় হলেও, বিভিন্ন ঘটনাবলির কারণে মোদীর উপর সাধারণ মানুষের অসন্তোষের যে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের মাধ্যমে বহিঃপ্রকাশ হবেনা এমন গ্যারেন্টিও কেউ দিতে পারছে না।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here