national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ে এখন ব্যতিব্যস্ত গোটা বিশ্ব। ভারতের অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলেও উদ্বেগ কমেনি এখনও। এই পরিস্থিতির মধ্যেই ক্যান্সার নিয়ে আশঙ্কাজনক প্রাপ্ত দিল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ। জানানো হল, আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে কমপক্ষে ১২ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে ক্যান্সার রোগীর হার। এই তথ্য স্বাভাবিকভাবেই আরো চিন্তা বাড়াল দেশবাসীর।

তথ্য বলছে, ২০২০ কুড়ি সালে ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা ১.৩৯ মিলিয়ন যা ২০২৫ সালে গিয়ে হতে পারে কমপক্ষে ১২ শতাংশ বেশি। রিপোর্টে আরও দেখা গিয়েছে, ২০২০ সালে মোট ক্যান্সার আক্রান্তের মধ্যে ২৭.১ শতাংশ ক্যান্সার রোগ তামাকজাত দ্রব্যের থেকে এসেছে। উত্তর-পূর্ব ভারতের হার এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি। তামাক জাতীয় দ্রব্য থেকে ক্যান্সারের পরেই রয়েছে গ্যাস্ট্রোইন্তেস্টিনাল ক্যান্সার এবং স্তন ক্যান্সার।

পুরুষদের মধ্যে ফুসফুস, মুখ এবং পাকস্থলীর ক্যান্সার সবচেয়ে বেশি বলে রিপোর্টে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে মহিলাদের মধ্যে স্তন ক্যান্সারের হার অনেক বেশি। আইসিএমআর এবং ন্যাশনাল সেন্টার ফুট ডিজিজ ইনফরমেটিক্স এন্ড রিসার্চ যৌথভাবে এই রিপোর্ট পেশ করেছে। রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০২০ সালে পুরুষদের মধ্যে নতুন ক্যান্সার আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৬,৭৯,০০০ যা ২০২৫ সালে হতে পারে ৭,৬৩,০০০। মহিলাদের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা এই বছর রয়েছে প্রায় ৭,১২,০০০, যা পরবর্তী পাঁচ বছরে হতে পারে ৮,০৬,০০০। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here