ডেস্ক: রক্ষিবিহীন রেল লাইনে স্কুল ভ্যানে ট্রেনের ধাক্কায় ১৩ শিশুর মৃত্যুর পর দুই দিনও কাটেনি, এরই মাঝে পথ দুর্ঘটনায় উত্তরপ্রদেশে মৃত্যু হল ৯ জনের। এদিন ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের লক্ষ্মীমপুর খেড়িতে। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৮ জন, তাঁদের মধ্যে অনেকেরই অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশসূত্রে খবর, এদিন সাহাজানপুর থেকে ১৭ জন যাত্রী নিয়ে সীতাপুরের দিকে যাচ্ছিল একটি মিনিভ্যান। দ্রুত গতিতে যাওয়ার সময় পথে লক্ষ্মীমপুর খেড়িতে দাঁড়িয়ে থাকা একটি লরিতে সজোরে ধাক্কা মারে মিনিভ্যানটি। ঘটনাস্থলেই গাড়ির চালক সহ মৃত্যু হয় ৯ জনের। আহত হন আরও ৮ জন। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান গাড়ি চালাতে চালাতে কোনও কারণে অন্যমনস্ক হয়ে পড়ে মিনিভ্যানটির চালক বছর পঁচিশের অনুপ। তার ফলেই আকস্মিকভাবে ঘটে যায় এই দুর্ঘটনা। দুর্ঘটনার পরেই উদ্ধারকার্যে হাত লাগান স্থানীয় বাসিন্দারা। আহত ও নিহতদের উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশও। কিভাবে এই দুর্ঘটনা তার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকালে গোরক্ষপুর থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে উত্তরপ্রদেশের কুশীনগরে রক্ষিবিহীন লেবেলক্রসিং পেরতে গিয়ে ঘটে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। রক্ষী ও রেলগেট বিহীন রেল লাইনের উপর দিয়ে স্কুল বাসটি যাওয়ার সময়ই সজোরে এসে ধাক্কা মারে একটি ট্রেন ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ১৩ জন পড়ুয়ার। যাদের প্রত্যেকের বয়স ৮ থেকে ১১-র মধ্যে। তার দুই দিন কাটতে না কাটতেই ফের বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটল উত্তরপ্রদেশে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here