ডেস্ক: ১২০ বছর পুরনো কাবেরী নদীর জলবন্টনের মামলায় কর্ণাটকের পক্ষেই রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। তামিলনাড়ুর ভাগ্যে এবার কমতে চলেছে কাবেরীর জলের পরিমাণ। শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র সহ বিচারপতি এএম খানউইলকরের ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটির শুনানি ছিল। সুপ্রিম আদালতের রায়ে কর্ণাটকের জয় হওয়ার ফলে এর রাজনৈতিক ইতিবাচক প্রভাবও আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে পড়তে পারে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এই মামলার রায় দিতে গিয়ে প্রধান বিচারপতি জানান, কোনও নদীর উপর কোনও রাজ্যের নির্দিষ্ট কোনও অধিকার হয় না। তামিলনাড়ু, কেরল ও পদুচেরি দিয়ে বয়ে যাওয়া নদীর ৯২ টিএমসিফিট জল এতদিন পর্যন্ত পেয়ে এসেছিল তামিলনাড়ু। কিন্তু সুপ্রিম আদালতের এই রায়ের ফলে এবার থেকে ১৭৭.২৫ টিএমসিফিট জল পাবে তামিলনাড়ু। একই সঙ্গে কর্ণাটক এখন থেকে ১৪.৭৫ টিএমসিফিট জল পাবে। জল বন্টনের এই ১০০ বছরেরও পুরনো সমস্যার সমাধান করতে বহুদিন ধরেই বিতর্ক চলে আসছিল। শেষ পর্যন্ত শীর্ষ আদালতের রায়ে দীর্ঘকালীন এই সমস্যার সমাধান সূত্র খুঁজে পাওয়া গেল।

ভোটমুখী কর্ণাটকে সুপ্রিম কোর্টের এই রায় শাসকদল কংগ্রেসের পক্ষেই যাবে বলে মনে করছেন অধিকাংশ বিশেষজ্ঞরা। শীর্ষ আদালতের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছে কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতৃত্ব। তামিলনাড়ু যদিও একেবারেই খুশি নয় এই সিদ্ধান্তে। এদিকে, এই রায়দানকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ানোর আশঙ্কায় বেঙ্গালুরুতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে অর্ধদিবস ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here