ডেস্ক: চাপের মুখে অবশেষে ভেঙে পড়ল যোগী আদিত্যনাথ সরকার। শেষ কয়েকদিন উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে মূল অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিং সেঙ্গারকে দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করল সিবিআই। সূত্রের খবর, লখনউয়ের সিবিআই দফতরে যোগী রাজ্যের বিধায়ককে টানা জিজ্ঞাসাবাদের পর ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ গ্রেফতার করে সিবিআই।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়ককে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৬৩, ৩৬৬, ৩৭৬, ৫০৬ ধারা ও শিশুদের যৌন নির্যাতন প্রতিরোধ আইনে (POCSO) গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার হওয়ার পর সংবাদমাধ্যমকে কুলদীপ আবারও জানান, তিনি দোষী নন। তাঁকে ফাঁসানো হচ্ছে। গতকাল এই মামলার শুনানি এলাহাবাদ হাইকোর্টের বক্তব্যের পরই আরও চাপ বাড়ে যোগী সরকারের উপর। সরকারি আইনজীবীদের আদালতের তরফ থেকে সোজাসুজি জানতে চাওয়া হয়, সরকার অভিযুক্ত বিধায়ককে একঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার করবে কি না। তখন রাজ্যের আইনজীবীরা জানান, গ্রেফতার করার মতো যথেষ্ট প্রমাণ তাদের হাতে নেই। কিন্তু গভীর রাতে জিজ্ঞসাবাদ চালিয়ে শেষ পর্যন্ত তাঁকে গ্রেফতার করে তদন্তকারী সংস্থা।

অন্যদিকে, অভিযুক্ত বিধায়ক গ্রেফতার হওয়ার পরই তাঁর মৃত্যুদণ্ডের দাবিতে সরব হয়েছে নির্যাতিতার পরিবার। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, কুলদীপ সিং সেঙ্গারকে ফাঁসি দেওয়া হোক।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তদের শাস্তির দাবীতে যোগীর বাসভবনের সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ওই তরুণীর পরিবার। অভিযোগ ছিল, গতবছর তাঁকে ধর্ষণ করেন উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ের বিজেপি বিধায়ক কূলদীপ সিং সেনগার ও তাঁর সঙ্গিরা। সেনগার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও কোনও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। উল্টে পুলিশি পশ্রয়ে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর থেকে তাঁর পরিবারকে রীতিমত হুমকি ও তাঁর বাবাকে মারধোর করা হয়েছে বলে অভিযোগ। তবে সেনগারের দাবি, তাঁকে ও তাঁর পরিবারকে বদনাম করতেই এইসব করছে ওই তরুণী।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here