ডেস্ক: দেখতে দেখতে কেটে গিয়েছে ৪ বছর। মামলা সিবিআইের দুয়ারে ঝুলে রইলেই এখনও চূড়ান্ত চার্জশিট তৈরি হয়নি। এই নিয়ে এবার সিবিআই প্রধান রাকেশ আস্থানার তিরস্কারের মুখে পড়লেন এ রাজ্যের সিবিআই কর্তারা। ২০১৯-এর আগেই যেমন ভাবেই হোক সারদা-নারদা সহ চিটফান্ড কেলেঙ্কারির তদন্ত শেষ করতে সিবিআইকে অতিরিক্ত সক্রিয়তার সঙ্গে কাজ করার নির্দেশ দিলেন তিনি। একই সঙ্গে সমস্ত তদন্তের জাল যে ২০১৯-এর আগেই গুটিয়ে আনতে হবে। এ কথাও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন আস্থানা।

বুধবার রাজ্যের সিবিআই কর্তাদের সঙ্গে নিজাম প্যালেসে প্রায় ৫ ঘণ্টা বৈঠক করে রাকেশ আস্থানা। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শহরে আসেন তিনি। শহরে এসেই আজকের বৈঠকের জন্য তলব করেন সমস্ত অফিসারদের। আজ বিএসএফের এসকর্ট করা একটি গাড়িতে নিজাম প্যালেসে উপস্থিত হন তিনি। জানা গিয়েছে, সারদা, নারদা ও রোজভ্যালি মামলার সঙ্গে যুক্ত প্রায় ২৮ থেকে ৩০ জন তদন্তকারী অফিসার যোগ দিয়েছিলেন এই বৈঠকে। তাঁদের প্রত্যেকের কাছে ছিল এই মামলার সমস্ত ফাইল এবং ল্যাপটপ। নিজাম প্যালেসের ১৫ তলার কনফারেন্স হলে হয় এই বৈঠক।

সূত্রের খবর, এদিনের বৈঠকে তদন্তের গতিপ্রকৃতি নিয়ে চরম অসন্তোষ প্রকাশ করেন আস্থানা। সারদা-নারদা তো রয়েইছে; এছাড়াও রোজভ্যালি, আইকোর, প্রয়াগ এসব চিটফান্ডেরও তদন্তের গতি স্লথ। এই নিয়ে রাজ্যের সিবিআই অফিসারদের একহাত নেন আস্থানা। যে ভাবেই হোক চলতি বছরের মধ্যেই যাতে চূড়ান্ত চার্জশিট তৈরি করা যায়, সে জন্য সমস্ত রকমের সহযোগিতারও আশ্বাস দেন তিনি। মামলা পিছু ৩ জন অতিরিক্ত অফিসার দিতেও সম্মত হয়েছেন আস্থানা। ফলে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের আগে তদন্তের গতি বাড়লে এবং চার্জশিট জমা পড়লে, রাজ্যে শাসকদলের উপরও যে চাপ বাড়বে তা দিনের আলোর মতোই স্পষ্ট।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here