সারদা মামলায় সিবিআই সক্রিয়তা অব্যাহত, রাজ্যের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রসচিবকে জিজ্ঞাসাবাদ

0
97

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নিউ সেক্রেটারিয়েটের বিল্ডিংয়ে সিবিআই হানা। জানা গিয়েছে, বর্তমানে পর্যটন সচিব তথা রাজ্যের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রসচিব অত্রি ভট্টাচার্যকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। ২০১৩ সালে সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন কাশ্মীরে গ্রেফতারের পরে সারদার একটি টিভি চ্যানেল চালানোর দায়িত্ব নেয় রাজ্য সরকার। তথ্য-সংস্কৃতি দফতর সিদ্ধান্ত নেয়, সারদার টিভি চ্যানেল ‘তারা টিভি’-র দায়ভার নেবে সরকার এবং মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ‘তারা’-কে ৫ কোটি টাকা দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সব মিলিয়ে প্রায় ৬ কোটি টাকা ‘তারা’-র অ্যাকাউন্টে দেওয়া হয় বলে সংস্থা সূত্রে খবর। এই সংক্রান্ত তদন্তের জন্যই রাজ্যের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্র সচিবের দফতরে সিবিআই গোয়েন্দারা গিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবারেই সারদা-তদন্তে পর্যটন সচিব অত্রি ভট্টাচার্যের অফিসে যায় সিবিআই। তাঁর বক্তব্য জানতে পর্যটন দফতরে গিয়েছিলেন তদন্তকারীরা। কিন্তু সরকারি কাজে ব্যস্ত থাকায় অত্রিবাবু পরে কথা বলবেন বলে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে জানান। এর পরেই এদিন সিবিআই নিউ সেক্রেটারিয়েট বিল্ডিংয়ে অত্রি ভট্টাচার্যের অফিসে এসেছেন। এদিন দুপুর দু’টো নাগাদ সিবিআই তদন্তকারীরা ওই অফিসে গিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ছিলেন প্রায় আড়াই ঘণ্টা।

যেই সময়ে সারদার তারা চ্যানেলের দায়িত্ব রাজ্য সরকার নেয় তখন রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের সচিব ছিলেন অত্রি ভট্টাচার্য। এখন সিবিআই জানতে চায়, সেই সময়ে সরকার এই দায়িত্ব নিতে চাইলেও সচিব হিসেবে অত্রিবাবু কেন বাধা দেননি। সিবিআইয়ের বক্তব্য, লক্ষ লক্ষ আমানতকারীর টাকা আত্মসাতের ঘটনায় অভিযুক্ত সারদা সংস্থার মালিককে গ্রেফতারের পরে সেই সরকারই কেন তাদের টিভি চ্যানেলে টাকা দিয়েছিল। যে সময় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সারদার চ্যানেলে টাকা গিয়েছিল, সেই সময় ওই তহবিলে অন্য বেশ কিছু অর্থলগ্নি সংস্থা টাকা দান করেছিল বলে দাবি সিবিআইয়ের। সরকারি বাজেট থেকেও মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে টাকা দেওয়া হয়েছিল। সিবিআইয়ের প্রশ্ন, দানের টাকায় চলা মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের টাকা কেন ওই চ্যানেলকে দেওয়া হল।

এ সব প্রশ্নের উত্তর পেতে তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের তৎকালীন সচিব অত্রি ভট্টাচার্যকে আগেই চিঠি দিয়েছিল সিবিআই। জবাবে সরকার জানিয়েছিল, কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে এমন সহায়তা করা হয়েছিল। সিবিআই ওই ফাইল চেয়ে পাঠালে সরকার তা দেয়। ফাইল অনুযায়ী, ‘তারা’ চ্যানেলকে টাকা দেওয়ার ‘চূড়ান্ত অনুমোদন’ মুখ্যমন্ত্রী তথা তথ্য-সংস্কৃতি মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিয়েছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here