bengal news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বৃহস্পতিবার লকডাউনের দ্বিতীয় দিন, তবে সংক্রমণ কম হওয়ায় বিশেষ লক্ষণ এখনও পর্যন্ত দেখা যাচ্ছে না ভারতে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪২ জন সংক্রমিত হওয়ার খবর মিলেছে। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁয়েছে ৬৫০। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতের সংখ্যাও দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। শেষ পাওয়া খবরে, এখনও পর্যন্ত ভারতে ১৬ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। তবে এখনও পর্যন্ত স্বস্তির খবর, গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হওয়ার এখনও কোনও লক্ষণ দেখতে পাওয়া যায়নি।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের যুগ্ম সচিব লাভ অগ্রওয়াল এই প্রসঙ্গে বলেছেন, আক্রান্তদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও কমিউনিটি ট্রান্সমিশন এখনও শুরু করেনি করোনা ভাইরাস। অর্থাৎ এক গোষ্ঠী থেকে অন্য গোষ্ঠীর মধ্যে সংক্রমণ লক্ষ্য করা যায়নি। একই সঙ্গে এদিন তিনি জানান, দেশের ১৭টি রাজ্যে করোনা চিকিৎসার জন্য হাসপাতালগুলো আলাদাভাবে কাজ করা শুরু করেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় যেই পাঁচ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে তারা সকলেই কোনও না ভাবে বিদেশ যাত্রার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ফলে এখনও চিন্তার কোনও কারণ নেই। কিন্তু এদিনও স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে বারবার সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং অর্থাৎ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার উপর জোর দেওয়া হয়।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সাধারণত চারটি স্টেজ থাকে। স্টেজ ১ হচ্ছে, যখন সরাসরি কোনও ব্যক্তি বিদেশ থেকে সেই ভাইরাস নিজের শরীরে বহন করে আনেন। স্টেজ ২-তে ওই ব্যক্তির শরীর থেকে দ্বিতীয় ব্যক্তির শরীরে সংক্রমণ ছড়ায়। ফলে দ্বিতীয় ব্যক্তি কীভাবে সংক্রমিত হলেন তা সহজেই চিহ্নিত করা যায়। সবচেয়ে বিপজ্জনক হল স্টেজ ৩। এই স্টেজে একজন ব্যক্তি কীভাবে সংক্রমিত হচ্ছেন তা চিহ্নিত করা যায় না। স্টেজ ৪ হচ্ছে অতিমারী, যখন এর উপর আর কোনও নিয়ন্ত্রণ থাকে না। কেন্দ্রীয় সরকার এখনও পর্যন্ত দাবি করে এসেছে, করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি আমাদের দেশে। সেটাই যেন সত্যি হয়, চাইছেন আপামর ভারতবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here