kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশনে রাজ্যের শ্রম প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের ওপরে হামলা ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার তদন্তভার হাতে নিল  জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নির্দেশে ইতিমধ্যেই সংস্থার তদন্তকারীরা রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থা সিআইডি এবং এই ঘটনায় গঠিত রাজ্য পুলিশের বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিটের সঙ্গে কথা বলেছে বলে স্বরাষ্ট্র দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় এই ঘটনার পরে প্রাথমিক ভাবে ঘটনাস্থল সরেজমিনে খতিয়ে দেখে এনআইএ-এর প্রতিনিধিরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে রিপোর্ট জমা দেন। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতেই তদন্তভার এনআইএ-এর হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে খবর প্রশাসনিক সূত্রে।

মন্ত্রীর ওপর হামলার ঘটনার পর দু’দিন ধরে ঘটনাস্থল পর্যবেক্ষণ করে এনআইএ রিপোর্ট পাঠিয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে। পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে যে, ঘটনাস্থলে বোমার বিস্ফোরণে প্রায় সাড়ে তিন ফুট গর্ত হয়েছিল। পাশেও একাধিক গর্ত তৈরি হয়। পাশাপাশি, মন্ত্রীকে লক্ষ্য করে এমন ভয়াবহ পরিকল্পনামাফিক হামলাকে ছোট করে দেখতে চাইছে না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। ফলে এনআইএ-র হাতেই তদন্তভার তুলে দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই সিআইডি ও সিটের তদন্তকারী দলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে এনআইএ।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের ওপর হামলার ঘটনায় ইতিমধ্যে সিআইডি গ্রেফতার করেছে এক বাংলাদেশি-সহ তিন জনকে। এই ঘটনার তদন্তে সিআইডি চাঞ্চল্যকর তথ্য জানতে পেরেছে। তদন্তকারীদের দাবি, সইদুল ইসলাম নামে ধৃত এক যুবক জেরায় জানিয়েছে, কোনও রাজনৈতিক হিংসা নয়, শুধুমাত্র পুরনো শত্রুতার কারণেই মন্ত্রী জাকির হোসেনকে হত্যার ছক করেছিল সে। জাকির হোসেনকে মারার জন্য অনেকদিন ধরে তীব্র ক্ষমতাসম্পন্ন বোমা বানায় সইদুল।

​ঘটনার তদন্তে নেমে কয়েকদিন আগে নিমতিতা স্টেশন চত্বর থেকে এক বাংলাদেশি যুবককে গ্রেফতার করেছিল সিআইডি। ওই যুবক স্টেশনে হকারি করত। তার কয়েকদিন পর আবু সামাদ ও সইদুল ইসলাম নামে আরও দুই যুবককে গ্রেফতার করে সিআইডি। জঙ্গিপুরের সুতির বাসিন্দার সইদুলকে জেরার পর চাঞ্চল্যকর তথ্য মিলেছে। জানা গিয়েছে, সইদুল এলাকায় সমাজবিরোধী হিসাবে পরিচিত। শুধু তাই নয়, সে একাধিক রকমের বোমা বানাতে পারদর্শী। অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকার কারণে এলাকার বাসিন্দা মন্ত্রী জাকির হোসেন কয়েকবার ওই যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করেন। সেই কারণে অধিকাংশ সময়ে এলাকার বাইরে থাকত ওই যুবক। আর তারপর থেকে জাকির হোসেনের ওপর আক্রোশ তৈরি হয় তার। সেই আক্রোশ থেকে জাকির হোসেনকে খুনের পরিকল্পনা করে সে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here